• বুধবার, জুলাই ২৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৪ রাত

বন্ধুদের নিয়ে স্ত্রীকে খুন, ৩ জনের ফাঁসি

  • প্রকাশিত ০৪:২২ বিকেল সেপ্টেম্বর ২৫, ২০১৮
প্রতীকী ছবি
প্রতীকী ছবি

দণ্ডাদেশপ্রাপ্ত তিনজন হলেন-নিহত গৃহবধু শাহজাদী আক্তারের স্বামী বাবু সরদার,বাবুর বন্ধু নাইম চৌকিদার ও উজ্জল খা।    

মাদারীপুর সদর উপজেলায় বন্ধুদের নিয়ে স্ত্রীকে হত্যার দায়ে স্বামীসহ তিনজনকে মৃত্যুদণ্ডের রায় দিয়েছেন আদালত। আজ মঙ্গলবার দুপুরে মাদারীপুরের জেলা ও দায়রা জজ শরীফ উদ্দিন আহমেদ এ ফাঁসির আদেশ দেন। 

দণ্ডাদেশ প্রাপ্ত তিনজন হলেন-নিহত গৃহবধু শাহজাদী আক্তারের স্বামী বাবু সরদার,বাবুর বন্ধু নাইম চৌকিদার ও উজ্জল খা।     

মামলার এজাহার সূত্রে জানা গেছে, মাদারীপুর পৌরসভার রকেট বিড়ি এলাকার খালেক সরদারের ছেলে বাবু সরদারের সঙ্গে মাদ্রা এলাকার শাহ আলম খানের মেয়ে শাহজাদী আক্তারের প্রেমের সম্পর্ক হয়। এই সম্পর্কে সূত্রে ধরে তারা বিয়ে করেন। শাহজাদী বিয়ের তিন মাসে পরই সন্তান প্রসব করেন। এতে ক্ষুব্ধ হয়ে তাকে হত্যার পরিকল্পনা করে বাবু। বাবুর বন্ধু নাইম, উজ্জ্বল ২০১৩ সালে ২৮ জুলাই বেড়াতে যাওয়ার কথা বলে আড়িয়াল খা নদীর পাড়ে নিয়ে যান শাহজাদীকে। সেখানে ধারালো অস্ত্র দিয়ে তার গলা কেটে হত্যা করা হয়।

এ ঘটনায় নিহতের মা নাছিমা বেগম বাদি হয়ে মামলা করেন। পরে পুলিশ বাহেরচর কাতলা গ্রাম থেকে মস্তকবিহীন শাহাজাদীর লাশ উদ্ধার করে। পরে কিছুটা দূরে তার কাটা মাথা পাওয়া যায়। 

দীর্ঘ তদন্ত শেষে উপপরিদর্শক (এসআই) সুলতান মাহমুদ ও এসআই সিরাজুল ইসলাম দণ্ডপ্রাপ্তদের বিরুদ্ধে আদালতে চার্জশীট দাখিল করেন। মূল আসামি বাবু আদালতে ১৬৪ ধারায় জবানবন্দিতে হত্যার বর্ণনা দেন। আদালতের বিচারক উপযুক্ত প্রমাণাদি শেষে এ রায় দেন। 

মাদারীপুর জজ কোর্টের পাবলিক প্রসিকিউটর (পিপি) অ্যাডভোকেট ইমরান লতিফ বলেন, হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে জড়িত থাকার অভিযোগে শাহজাদীর স্বামীসহ তিনজনকে আদালত মৃত্যুদণ্ডাদেশ দিয়েছেন।