• রবিবার, সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৪ রাত

আজ চালু হচ্ছে ‘নাম্বার অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদল’

  • প্রকাশিত ০৬:০১ সন্ধ্যা সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৮
স্মার্টফোন
ছবি: সৌজন্যে

এমএনপি চালুর আগেই প্রথম দফায় অযৌক্তিক খরচ বৃদ্ধির বিষয়ে জানিয়েছেন বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দীন আহমেদ।

আজ রাত ১২ টা থেকে চালু হচ্ছে দীর্ঘ প্রতীক্ষিত এমএনপি (নাম্বার অপরিবর্তিত রেখে অপারেটর বদল)। রবিবার (৩০ সেপ্টেম্বর) নিজ বিবৃতিতে এমনটাই জানালেন বাংলাদেশ মুঠোফোন গ্রাহক অ্যাসোসিয়েশনের সভাপতি মহিউদ্দীন আহমেদ।

মহিউদ্দীন আহমেদ বলেন, “এমএনপি চালুর ঘোষণার সময় সরকারের শীর্ষস্থানীয় দায়িত্বশীল ব্যক্তি পর্যন্ত বলেছিলেন, এমএনপি-এরর ক্ষেত্রে গ্রাহকদেরকে শুধুমাত্র ১৫ টাকা সার্ভিস চার্জ ও ১৫% ভ্যাট প্রদান করতে হবে। কিন্তু গত দুই দিন আগে গণমাধ্যমে এমএনপি চালুর দিন ঘোষণার সময় আমরা জানতে পারলাম যে, অপারটের পরিবর্তনের জন্য ৫০ টাকা সার্ভিস চার্জ ও ১৫% ভ্যাট প্রদান করতে হবে। অর্থাৎ গ্রাহককে দিতে হবে ৫৭.৫ টাকা। সেই সঙ্গে অপারেটর রিপ্লেসমেন্টের জন্য ১০০ টাকা চার্জ অপারেটরের কাছ থেকে আদায় করার কথা রয়েছে সরকারের। আমরা আশঙ্কা করছি এই চার্জও গ্রাহকদের কাছ থেকে কৌশলে আদায় করা হতে পারে। আমরা আগে বলেছিলাম, নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা সম্প্রসারণ করার পর এমএনপি চালু করার কথা। কিন্তু সরকার নেটওয়ার্ক ব্যবস্থা সম্প্রসারণের জন্য অপারেটরদেরকে তাগিদ দিতে ব্যর্থ হয়েছে। উল্টো কলরেটের মূল্যবৃদ্ধি করা হয়েছে। দুর্বল নেটওয়ার্কের ফলে এমএনপি সফলতা লাভ নাও করতে পারে।” 

তিনি আরও বলেন, “আমাদের প্রতিবেশী দেশ ভারতে এমএনপি চালুর পূর্বে অপারেটর জিও বিনামূল্যে কল করার সুবিধাসহ স্বল্পমূল্যে ইন্টারনেট সেবা দেওয়ার ঘোষণা দিয়েছিল। কিন্তু আমাদের দেশে কোন অপারেটরকেই কোনও ধরনের সুযোগ সুবিধা দেওয়ার প্রচারণা দেখছি না। সার্ভিস সেন্টারে গিয়ে এমএনপি করার যে ব্যবস্থা করা হয়েছে, এতে করে গ্রাহকরা হয়রানির শিকার হবেন। কারণ আমাদের দেশের অপারেটরদের সার্ভিস সেন্টারগুলি পর্যাপ্ত নয়। এতে করে গ্রাহকদের সময় ও অতিরিক্ত অর্থ ব্যয়ের আশঙ্কাই বেশি।”