• সোমবার, জুন ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৯ রাত

নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্থদের পাশে ইউরোপীয় ইউনিয়ন

  • প্রকাশিত ০৪:৫২ বিকেল অক্টোবর ১৬, ২০১৮
riverbank collapse
প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকা নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে। ছবি: মেহেদী হাসান/ঢাকা ট্রিবিউন

শুধু সেপ্টেম্বরের প্রথম তিন সপ্তাহেই নদী ভাঙনে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকা নদীগর্ভে তলিয়ে গেছে

নদী ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্থদের সহযোগিতায় এগিয়ে এসেছে ইউরোপীয় ইউনিয়ন। শরীয়তপুরে পদ্মা নদীর ভাঙনে ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারের জন্য বাংলাদেশি অর্থে ৭ লাখ ৮৪ হাজার টাকার অনুদান দিচ্ছে সংস্থাটি। 

ইউরোপিয়ান কমিশনের এক প্রেস বিজ্ঞপ্তির বরাতে জানা গেছে, এই সহযোগিতার ফলে সরাসরি ১৫ হাজার ক্ষতিগ্রস্থ পরিবারকে সহযোগিতা করা সম্ভব হবে। 

অনুদানটি মূলত ‘ইন্টারন্যাশনাল ফেডারশন অব রেড ক্রস’ এবং রেড ক্রিসেন্ট সোসাইটিজের জন্য ইউরোপীয় ইউনিয়নের ‘ডিজাস্টার রিলিফ ইমারজেন্সি ফান্ড’ (ডিআরইএফ) বরাদ্দকৃতের একটি অংশ। পদ্মা নদীর পানির মাত্রা বেড়ে যাওয়ায় চলতি বছরের সেপ্টেম্বরের শুরু থেকেই ক্ষতিগ্রস্থ হতে শুরু করে মানুষ। শুধু সেপ্টেম্বরের প্রথম তিন সপ্তাহেই নদী ভাঙনে প্রায় পাঁচ কিলোমিটার এলাকা নদীগর্ভে তলিয়ে যায়। এতে ক্ষতিগ্রস্থ হন আট হাজারেরও বেশি মানুষ। 

এরই মধ্যে নড়িয়া এবং জাজিরা উপজেলা থেকে ৪৩ হাজারেরও বেশি মানুষকে নিরাপদ স্থানে সড়িয়ে নেওয়া হয়েছে। অনুমান করা হচ্ছে, এবারের এই নদী ভাঙনে আট হাজারেরও বেশি মানুষ স্থায়ীভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হয়েছেন। 

এ ছাড়াও এই দুর্যোগের ফলে ফসল এবং আবাদি জমির যে ক্ষতি হয়েছে তা আক্রান্তদের খাদ্য সংকটের মুখে ঠেলে দিয়েছে বলে জানানো হয়েছে বিজ্ঞপ্তিটিতে।