• সোমবার, আগস্ট ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৬ রাত

জয়পুরহাটে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা গেলেন একই পরিবারের ৮ জন

  • প্রকাশিত ১২:০৫ দুপুর নভেম্বর ৮, ২০১৮
অগ্নিকাণ্ড
জয়পুরহাটে অগ্নিকাণ্ডে এক পরিবারের ৮ জনের মৃত্যু। ছবি: ইউএনবি

প্রাথমিকভাবে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে এ আগুনের সূত্রপাত বলে ধারণা করা হলেও এটি বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স

জয়পুরহাট শহরে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে সৃষ্ট আগুনে একই পরিবারের আটজন নিহত হয়েছে।

বুধবার রাতে আরামনগর এলাকার একটি বাড়িতে এ অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে।

আগুনে পুড়ে ঘটনাস্থলেই মারা যান আব্দুল মোমিন (৩৮), তার মা মোমেনা বেগম (৬২) ও মেয়ে বৃষ্টি (১৪)। বৃহস্পতিবার ভোরে ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ণ ইউনিটের নেয়ার পথে মারা যান নিহত আব্দুল মোমিনের বাবা দুলাল হোসেন (৭১), দুই যমজ মেয়ে হাসি ও খুসি (১২) এবং ছোট ছেলে নূর (৬) ।

জয়পুরহাট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স জানায়, বুধবার আনুমানিক রাত ৯টার দিকে জয়পুরহাট পৌর এলাকার জয়পুরহাট শহীদ জিয়া ডিগ্রি কলেজের অদূরে আরামনগর এলাকার মুরগী ব্যবসায়ী আব্দুল মোমিনের বাড়িতে বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটে। এতে ওই বাড়ির গৃহকর্তা আব্দুল মোমিন (৩৮), তার মা মোমেনা বেগম (৬২) ও মেয়ে বৃষ্টি (১৪) ঘটনাস্থলে নিহত হয়।

খবর পাওয়ার সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এবং পুলিশ সেখানে ছুটে গিয়ে আহতদের উদ্ধার করে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে নিয়ে ভর্তি করিয়ে দেয়।

সদর থানার ওসি সিরাজুল ইসলাম জানান, গুরুতর দগ্ধ অবস্থায় ওই পরিবারের আরও ৫ সদস্যকে প্রথমে জয়পুরহাট আধুনিক জেলা হাসপাতালে নেয়া হয়। পরে অবস্থার অবনতি হলে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেয়ার পথে বৃহস্পতিবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে তারা মারা যান।

অগ্নিকাণ্ডে আব্দুল মোমিনের টিন শেডের পাকা বাড়ির চারটি ঘর ও তার বিভিন্ন আসবাবপত্র পুড়ে গেছে।

প্রাথমিকভাবে গ্যাস সিলিন্ডার বিস্ফোরণে এ আগুনের সূত্রপাত বলে ধারণা করা হলেও এটি বৈদ্যুতিক শর্ট সার্কিট থেকে ঘটেছে বলে নিশ্চিত করেছেন জয়পুরহাট ফায়ার সার্ভিস ও সিভিল ডিফেন্স এর ইন্সপেক্টর সিরাজুল ইসলাম।