• বুধবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৭ রাত

নিজবাড়িতে খুন হলেন উপজেলা আ'লীগের সভাপতি

  • প্রকাশিত ১১:৫৭ সকাল ডিসেম্বর ৫, ২০১৮
নওগাঁ
নওগাঁ

বাড়ির ভেতর ওৎ পেতে থাকা দুর্বৃত্তরা তাকে ধারালো অস্ত্র দিয়ে এলোপাথারি ছুরিকাঘাত করে

নওগাঁর পত্নীতলা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ও সাবেক পৌর মেয়র ইছাহাক হোসেন (৭০) দূর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে নিহত হয়েছেন। এ সময় তার ড্রাইভার দুলাল রায় আহত হয়েছেন।

 মঙ্গলবার (৪ ডিসেম্বর) রাত পৌঁনে ১০টার দিকে তার নিজ বাড়ির গেটে ঘটনাটি ঘটেছে। 

নিহত ইছাহাক হোসেন পত্নীতলা উপজেলা নজিপুর ইউনিয়নের মামুদপুর গ্রামের মৃত: খায়ের মুনসীর ছেলে। 

পত্নীতলা থানার ওসি পরিমল চক্রবর্তী জানান, প্রতিদিনের ন্যায়  মঙ্গলবার রাতে দলীয় কার্যালয় থেকে কাজ শেষ করে বাসার উদ্দ্যেশ্যে বের হন। গাড়ি থেকে নেমে বাসার গেটে প্রবেশ করার সময় আগে থেকে ওৎ পেতে থাকা ৪/৫জনের একটি দল সংঘবদ্ধভাবে তার উপর ঝাপিয়ে পড়ে এবং উপুর্যপুরী ছুরিকাঘাত করে। এ সময় তার চিৎকারে ড্রাইভার দুলাল গাড়ী থেকে নেমে এলে তাকেও ছুরিকাঘাত করা হয়। ড্রাইভার দুলালের চিৎকারে গ্রামবাসীরা এসে আহত দুজনকে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়।

আহত দুলালের বাড়ি নজিপুর ইউনিয়নের চকদূর্গাআয়ন গ্রামের নারায়ণ রায়ের ছেলে ঘটনার সঠিক কোন কারণ জানা সম্ভব হয়নি। দুর্বৃত্তদের গ্রেফতারের অভিযান চলছে বলে ওসি জানান। 

এ বিষয়ে পত্নীতলা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের মেডিক্যাল অফিসার দেবাসিস রায় জানান, গ্রামবাসীরা উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি ইছাহাক হোসেন ও তার ড্রাইভার দুলাল রায়কে হাসপাতালে নিয়ে আসার পথিমধ্যেই ইছাহাক হোসেন মারা যায়। আর ড্রাইভার দুলাল রায় বর্তমানে হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় রয়েছে। নিহত ইছাহাক হোসেনের মাথায়, বুকে ও গায়েসহ বেশ কিছু স্থানে ছুরিকাঘাতের চিহ্ন রয়েছে।