• সোমবার, আগস্ট ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৪৩ সকাল

শিক্ষামন্ত্রী: শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে অতিরিক্ত ফি নেয়া হলে কঠোর ব্যবস্থা

  • প্রকাশিত ০৫:০৭ সন্ধ্যা জানুয়ারী ১১, ২০১৯
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ছবি: মাহমুদ হোসাইন অপু/ ঢাকা ট্রিবিউন (ফাইল ছবি)।

'শিক্ষার মান উন্নয়নে যা কিছু প্রয়োজন তার সবকিছু করা হবে'

শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে ছাত্র-ছাত্রী ভর্তি ও পরীক্ষাসহ সব ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ফি আদায় করা হলে কঠোর ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে হুঁশিয়ারি দিয়েছেন নবনিযুক্ত শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। শুক্রবার (১১ জানুয়ারি) চাঁদপুর সদরের বিভিন্ন ইউনিয়নে নেতা-কর্মীদের সাথে নির্বাচন পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময়কালে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে তিনি এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, "ভর্তির ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ফি আদায় নিয়মবহির্ভূত কাজ এবং অন্যায়। যে নিয়ম বেঁধে দেয়া আছে সেই নিয়ম মেনে শিক্ষার্থী ভর্তি করবেন। কোনো ক্ষেত্রে অতিরিক্ত ফি আদায়ের প্রমাণ পাওয়া গেলে যথোপযুক্ত ব্যবস্থা নেয়া হবে"।

বছরের প্রথম দিন শিক্ষার্থীদের হাতে নতুন বই তুলে দেয়া, প্রতিটি শিশুকে বিদ্যালয়মুখী করা, শিক্ষার্থীদের ঝরে পড়া রোধ ও বিদ্যালয়বিহীন গ্রামে বিদ্যালয় স্থাপনসহ শিক্ষা ক্ষেত্রে ব্যাপক উন্নয়ন হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এসব সাফল্য এগিয়ে নিতে আগামী পাঁচ বছর এ ধারা অব্যাহত থাকবে। এছাড়া অন্য যেসব চ্যালেঞ্জ রয়েছে তা মোকাবিলা করা হবে। শিক্ষার মান উন্নয়নে যা কিছু প্রয়োজন তার সবকিছু করা হবে। এ ক্ষেত্রে সবার সহযোগিতা চেয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

নতুন মন্ত্রিসভায় জায়গা পাওয়া প্রসঙ্গে তিনি বলেন, "প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা যে বিশ্বাসে আমাদের মন্ত্রীর দায়িত্ব দিয়েছেন আমরা তার সেই বিশ্বাসের মর্যাদা দিয়ে দেশের উন্নয়নে কাজ করে যাব।" মন্ত্রীত্ব পেয়ে যাতে নিজেদের মধ্যে অহংকার বোধ চলে না আসে সে ব্যাপারে সংশ্লিষ্টদের নজর রাখার আহ্বান জানান তিনি।

নেতা-কর্মীদের উদ্দেশে দীপু মনি বলেন, "অতি উৎসাহী হয়ে কেউ এমন কোনো আচরণ করবেন না যাতে করে সরকারের ভাবমূর্তি ক্ষুণ্ন হয়। দেশে উন্নয়নের ধারা অব্যাহত রাখতে সবাইকে ঐক্যবদ্ধভাবে কাজ করতে হবে"।

মন্ত্রী সদর উপজেলার তরপুরচণ্ডী, কল্যাণপুর ও বিষ্ণুপুরসহ বিভিন্ন ইউনিয়নের নেতা-কর্মীদের সাথে নির্বাচন পরবর্তী শুভেচ্ছা বিনিময় করেন। সেই সাথে তিনি বিভিন্ন পথসভায় বক্তব্য দেন।

অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক শওকত ওসমান, সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা কানিজ ফাতেমা, অতিরিক্ত পুলিশ সুপার জাহেদ পারভেজ চৌধুরী, জেলা আওয়ামী লীগ সভাপতি ও পৌর মেয়র নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটোয়ারী দুলাল, সহ-সভাপতি ওয়াদুদ টিপু প্রমুখ এ সময় উপস্থিত ছিলেন।