• রবিবার, জুলাই ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৪৬ দুপুর

ইভটিজিং করে পালানোর সময় মোটরসাইকেলচাপায় ছয় শিক্ষার্থী আহত

  • প্রকাশিত ০৮:৫৩ রাত জানুয়ারী ২৭, ২০১৯
টাঙ্গাইল

এই ঘটনায় হৃদয় নামে এক বখাটেকে স্থানীয় জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে

টাঙ্গাইলের মির্জাপুরে ইভটিজিং করে পালিয়ে যাওয়ার সময় ছয় শিক্ষার্থীর উপর দিয়ে বেপরোয়াভাবে মোটরসাইকেল উঠিয়ে দিয়েছে দুই বখাটে। ঘটে। এ ঘটনায় গুরুতর আহত ২ শিক্ষার্থীকে কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

রবিবার (২৭ জানুয়ারি) উপজেলার হাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ে এ ঘটনা ঘটে। এই ঘটনার প্রেক্ষিতে হৃদয় নামে এক বখাটেকে স্থানীয় জনতা আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা যায়, উপজেলার হারিয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ছয় শিক্ষার্থী রবিবার বিদ্যালয়ে যাচ্ছিল। এ সময় একই এলাকার চানপুর গ্রামের জবেদ আলীর ছেলে হৃদয় ও তার সহযোগী শিশির মোটরসাইকেলযোগে ওই স্কুল শিক্ষার্থীদের ইভটিজিং করে দ্রুত পালিয়ে যেতে চেষ্টা করে। এসময় দ্রুত মোটরসাইকেল চালাতে গিয়ে ওইখানকার শিক্ষার্থীদের গায়ের উপর মোটরসাইকেল তুলে দেয়।

এতে হাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের ৬ শিক্ষার্থী আহত হয়। এদের মধ্যে ২ জনের পা ভেঙে গেছে। তাদের কুমুদিনী হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

এ ঘটনায় স্থানীয় জনতা বখাটে হৃদয়কে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। অপর একজন পালিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে মির্জাপুর থানার সহকারি উপ-পরিদর্শক রফিকুল ইসলাম বলেন, "স্কুল ছাত্রীদের উত্যক্ত করে দ্রুতগতিতে পালিয়ে যাওয়ার সময় শিক্ষার্থীদের উপর মোটরসাইকেল তুলে দেয়। স্থানীয় জনতা হৃদয় নামে এক বখাটেকে আটক করে খবর দিলে তাকে থানায় আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে"।

হাড়িয়া উচ্চ বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক আব্দুল আলীম জানান, হৃদয় তার বিদ্যালয়ের ছাত্র হলেও সে বখাটে প্রকৃতির। হৃদয় ও অপর বখাটে শিশির প্রায় প্রতিদিন রাস্তায় ছাত্রীদের উত্যক্ত করে থাকে বলে তিনি জানান।