• বৃহস্পতিবার, আগস্ট ২২, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৫৪ সন্ধ্যা

রাজধানীতে ধর্ষণের শিকার আদিবাসী কিশোরী

  • প্রকাশিত ০৮:৪০ রাত ফেব্রুয়ারি ১৩, ২০১৯
যৌন হেনস্থা
প্রতীকী ছবি

ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ইউসুফ পলাতক রয়েছেন

রাজধানীর গুলশান এলাকায় এক আদিবাসী গারো কিশোরী (১৬) গৃহকর্মীকে ধর্ষণ অভিযোগ উঠেছে গৃহকর্তার বিরুদ্ধে। বুধবার (১৩ ফেব্রুয়ারি) সকালে এ ঘটনা ঘটে।

এদিন দুপুরে নির্যাতনের শিকার কিশোরীকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

উদ্ধারকারী প্রতিবেশি মেরী ঢাকা ট্রিবিউনকে জানান, গত ২৬ জানুয়ারি ওই কিশোরীকে গ্রামের বাড়ি শেরপুরের ঝিনাইগাতী উপজেলার বরাইগ্রাম থেকে চাচাতো বোনের মাধ্যমে গুলশানের কালাচাঁদপুরের একটি বাসায় গৃহকর্মী হিসাবে কাজে পাঠায় তার পরিবার। বাসার স্বামী-স্ত্রী দু'জনই চাকরিজীবী। 

তিনি আরও বলেন, বুধবার তার স্ত্রী কর্মস্থলে চলে গেলে সকাল ৯ টার দিকে গৃহকর্তা ইউসুফ ওই কিশোরীকে দু'দফায় ধষর্ণ করেন। বিষয়টি প্রতিবেশীদের মাধ্যমে ইউসুফের স্ত্রী জানতে পেরে বাসায় চলে আসেন। পরে বাসা থেকে রক্তাক্ত অবস্থায় ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

অভিযুক্ত ইউসুফ মোবাইল সেবাদাতা প্রতিষ্ঠান গ্রামীণ ফোনে চাকরি করেন বলেও জানান প্রতিবেশীরা। 

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতাল পুলিশ ফাঁড়ির পরিদর্শক মো. বাচ্চু মিয়া জানান, ধর্ষণের শিকার এক গারো নারীকে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। বিষয়টি গুলশান থানাকে অবহিত করা হয়েছে।

গুলশান পুলিশের উপ-পরিদর্শক (এসআই) মো. নুরুজ্জামান ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, পুলিশ ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে আলামত সংগ্রহ করেছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত ইউসুফ পলাতক রয়েছেন।