• সোমবার, মে ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৯ রাত

‘গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে এখনো সিদ্ধান্ত হয়নি’

  • প্রকাশিত ০৯:৩৬ রাত মার্চ ১৪, ২০১৯
প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী
প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী। ফাইল ছবি।

'বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন আলোচনা করছে'

গ্যাসের মূল্যবৃদ্ধি নিয়ে এখনও কোনো সিদ্ধান্ত হয়নি বলে জানিয়েছেন  প্রধানমন্ত্রীর বিদ্যুৎ, জ্বালানি ও খনিজ সম্পদবিষয়ক উপদেষ্টা তৌফিক-ই-এলাহী চৌধুরী।

বৃহস্পতিবার সাভারের সিডিএম এ ব্র্যাক ইউনিভার্সিটির ইলেকট্রিকাল অ্যান্ড ইলেকট্রনিক ইঞ্জিনিয়ারিং বিভাগ কর্তৃক আয়োজিত তিনদিন ব্যাপী ‘ইন্টারন্যাশনাল কনফারেন্স অন এনার্জি অ্যান্ড পাওয়ার ইঞ্জিনিয়ারিং-২০১৯’ এ যোগ দিয়ে সাংবাদিকদের তিনি এসব কথা বলেন।

তিনি বলেন, “বিষয়টি নিয়ে বাংলাদেশ এনার্জি রেগুলেটরি কমিশন (বিইআরসি) আলোচনা করছে। বিভিন্ন কোম্পানি প্রস্তাব দিয়েছে। ভোক্তারাও তাদের অনুরোধ ও মন্তব্য দিয়েছেন। এখনও কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি”।

“বাংলাদেশে গ্যাসের পরিমাণ সীমিত। এদিকে সরকার এলএনজি গ্যাস আমদানি করছে। তবে এলএনজি গ্যাস দেশীয় গ্যাসের দামের চেয়ে বেশি। দেশীয় ও আমদানি করা গ্যাসের মধ্যে দাম সমন্বয় করে দিলে ভোক্তাদের জন্য ব্যয়বহুল হবে না। দেশে নতুন গ্যাস আসলে প্রথমে বিদ্যুৎ, পরে শিল্প ও তারপরে সার কারখানায় দেওয়া হবে। এরপরেই বাসা বাড়িতে গ্যাস দেওয়ার চিন্তা ভাবনা করা হবে”, যোগ করেন তিনি।

এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন- ভার্জিনিয়া টেক ইউনিভার্সিটির প্রফেসর সাইফুর রহমান, চায়নার স্টেট গ্রিড করপোরেশনের ড. ইউ জুন, অস্ট্রেলিয়ার অফ ইউনিভার্সিটির অফ প্রফেসর তপন কুমার সাহা, অস্ট্রেলিয়ার কার্টিন ইউনিভার্সিটির প্রফেসর সাইদ ইসলাম, ভারতের পোসোকোর ড. সুশীল কুমার সোনি ও পাওয়ার রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট কনসাল্টেন্ট ড. নাগারাজা রামাপ্পা।

উল্লেখ্য, ৩ দিনের এই সম্মেলনে অংশ নিয়েছেন নানা দেশের প্রখ্যাত জ্বালানি বিশেষজ্ঞরা।  বাংলাদেশের ৩৪ জন শিক্ষার্থী প্রতিনিধিত্ব করছেন এই সম্মেলনে। মোট ৩৬ টি গবেষণা প্রবন্ধ এই সম্মেলনে উপস্থাপন করা হবে।