• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১৪ রাত

পর্নোগ্রাফি মামলায় কিশোরের কারাদণ্ড

  • প্রকাশিত ১১:৩০ সকাল এপ্রিল ৮, ২০১৯
আটক

এ মামলার অপর দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত

ঝালকাঠিতে পর্নোগ্রাফি মামলায় দুলাল হোসেন (১৮) নামে এক কিশোরকে এক বছর দুই মাসের কারাদণ্ড ও ১০ হাজার টাকা জরিমানা অনাদায়ে আরও এক মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দিয়েছেন আদালত।

রবিবার দুপুরে ঝালকাঠির জ্যেষ্ঠ হাকিম আদালতের বিচারক বেগম রুবাইয়া আমেনা এ আদেশ দেন।

এ মামলার অপর দুই আসামিকে বেকসুর খালাস দিয়েছেন আদালত। রায় ঘোষণার সময় আসামিরা আদালতে উপস্থিত ছিলেন।

দণ্ডপ্রাপ্ত আসামি দুলাল রাজাপুর উপজেলার বড়গালুয়া পাকাপুল এলাকার মৃত আবদুল মান্নান হাওলাদারের ছেলে। সে ঝালকাঠি শহরের টিঅ্যান্ডটি সড়কে বাসা ভাড়া করে থাকত।

মামলার বিবরণে জানা গেছে, ২০১৫ সালের ২৯ এপ্রিল ঝালকাঠি শহরের বাসস্ট্যান্ড এলাকার ‘আলেয়া পল্লী ফোন’ নামের একটি দোকানে অভিযান চালায় বরিশাল র‌্যাব-৮ এর একটি দল। এসময় দোকানের একটি কম্পিউটার ও একটি পেনড্রাইভের ভেতর থেকে পর্নোগ্রাফি ভিডিও ও ছবি উদ্ধার করে তারা। এ ঘটনায় দোকানের মালিক দুলাল হোসেন, মামুন খলিফা ও মো. রাসেল হাওলাদারকে আটক করা হয়।

পরে তাদের বিরুদ্ধে বরিশাল র‌্যাব-৮ এর উপসহকারী পরিচালক (ডিএডি) আবদুর রেজ্জাক বাদী হয়ে ঝালকাঠি থানায় পর্নোগ্রাফি আইনে একটি মামলা দায়ের করেন। দীর্ঘ বিচার কার্য শেষে আজ আদালত এ রায় দেন।