• শুক্রবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৬ রাত

ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী হত্যাচেষ্টায় এজাহারভূক্ত আরেক আসামি গ্রেফতার

  • প্রকাশিত ১০:৪৯ সকাল এপ্রিল ১০, ২০১৯
ফেনীর মাদ্রাসা ছাত্রী
ঢাকা মেডিকেল কলেজের বার্ন ইউনিটে চিকিৎসাধীন ফেনীর মাদ্রাসাছাত্রী নুসরাত জাহান রাফি। ফোকাস বাংলা

বুধবার (১০ এপ্রিল) ভোরে সোনাগাজী উপজেলার তুলাতলি এলাকা থেকে তাকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রেফতার করে পুলিশ

ফেনীর সেই মাদ্রাসাছাত্রীকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যার চেষ্টার মামলার এজাহারভূক্ত আরেক আসামি জোবায়ের আহমেদকে গ্রেফতার করা হয়েছে। 

বুধবার (১০ এপ্রিল) ভোরে সোনাগাজী উপজেলার তুলাতলি এলাকা থেকে তাকে গোপন সংবাদের ভিত্তিতে গ্রেফতার করে পুলিশ। মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা সোনাগাজী থানার ওসি (তদন্ত) কামাল উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। 

অন্যদিকে, এই ঘটনায় গত রাতে প্রধান আসামি সোনাগাজী সিনিয়র ফাজিল মাদ্রাসার অধ্যক্ষ সিরাজ উদ- দৌল্লাহ’র ভাগনি ও ভিকটিমের সহপাঠী উম্মে সুলতানা পপিকে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ । 

এদিকে জেলা কারাগারে থাকা এই মামলার প্রধান আসামি মাদ্রাসা অধ্যক্ষ, ওই মাদ্রাসার  ইংরেজি বিভাগের শিক্ষক আফছার হোসেন, নাইট পিয়ন কাম দফতরি নুরুল আমীনসহ তিন আসামির রিমান্ড শুনানি আজ  বুধবার ফেনীর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট শরাফত উদ্দিনের আদালতে অনুষ্ঠিত হবে। 

প্রসঙ্গত, গত শনিবার (৬ এপ্রিল) সকাল ৯টার দিকে আলিম পর্যায়ের আরবি প্রথম পত্র পরীক্ষা দিতে সোনাগাজী ইসলামিয়া ফাজিল মাদ্রাসা কেন্দ্রে যায় ওই ছাত্রী। এরপর কৌশলে তাকে পাশের ভবনের ছাদে ডেকে নেওয়া হয়। সেখানে ৪/৫ জন বোরকা পরিহিত ব্যক্তি ওই ছাত্রীর শরীরে কেরোসিন ঢেলে আগুন ধরিয়ে দেয়। এতে তার শরীরের ৮০ শতাংশ পুড়ে যায়। 

পরে ওই ছাত্রীকে উদ্ধার করে তার স্বজনরা প্রথমে সোনাগাজী উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে চিকিৎসকরা তাকে ফেনী সদর হাসপাতালে পাঠান। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর তাকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে পাঠানো হয়। বর্তমানে ওই ছাত্রীকে লাইফ সাপোর্টে রাখা হয়েছে।