• রবিবার, মে ২৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৪ সকাল

গণপূর্তমন্ত্রী: ম্যানুয়াল নয়, আধুনিক প্রযুক্তিতে ভাঙা হবে বিজিএমইএ ভবন

  • প্রকাশিত ০৪:০৯ বিকেল এপ্রিল ১৭, ২০১৯
গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম
গৃহায়ণ ও গণপূর্তমন্ত্রী শ ম রেজাউল করিম । ফাইল ছবি।

কী পদ্ধতিতে ভবনটি ভাঙা হবে, তা চূড়ান্ত করা হবে আগামী ২৫ এপ্রিল।

বিজিএমইএ ভবন ভাঙার প্রক্রিয়া আগামী ২৫ এপ্রিল চূড়ান্ত হবে বলে জানিয়েছেন গৃহায়ন ও গণপূর্তমন্ত্রী অ্যাডভোকেট শ ম রেজাউল করিম। 

তিনি বলেন, "ম্যানুয়াল পদ্ধতিতে নয়— আধুনিক প্রযুক্তি ব্যবহার করে বিজিএমইএ ভবন ভাঙা হবে। তবে কী পদ্ধতিতে ভবনটি ভাঙা হবে, তা চূড়ান্ত করা হবে আগামী ২৫ এপ্রিল।"

বুধবার (১৭ এপ্রিল) দুপুরে সচিবালয়ে নিজ দফতরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে তিনি এসব কথা জানান।

মন্ত্রী বলেন, "এই ভবন ভাঙার ক্ষেত্রে আগ্রহীদের কাছ থেকে দরপত্র আহ্বান করা হয়েছে। আজ (বুধবার) বিভিন্ন জাতীয় দৈনিক পত্রিকায় তা প্রকাশিত হয়েছে। ২৪ এপ্রিলের মধ্যে আগ্রহীদেরকে তাদের প্রস্তাব জমা দিতে বলা হয়েছে।"

গণপূর্তমন্ত্রী বলেন, "২৫ এপ্রিলের পরবর্তী এক সপ্তাহের মধ্যে বিজিএমইএ ভবন ভাঙা হবে এবং তার পরবর্তী ৯০ দিনের মধ্যে ওই স্থানটি সম্পূর্ণ খালি করে দেওয়া হবে।"

উল্লেখ্য, বিজিএমইএ ভবন ভাঙতে চলতি বছরের ১২ এপ্রিল পর্যন্ত সময় দেন আদালত। যার ধারাবাহিকতায় গত ১২ এপ্রিল বিজিএমইএ’কে বেঁধে দেওয়া সময় শেষ হয়। এরপর মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সকালে ভবনটি ভাঙার প্রয়োজনীয় সরঞ্জাম নিয়ে হাজির হয় রাজউক।

ভবনটি অপসারণের অংশ হিসেবে এর মধ্যে থাকা অফিসের মালামাল সরিয়ে নিতে চার দফায় সময় বেঁধে দেওয়ার পর মঙ্গলবার (১৬ এপ্রিল) সন্ধ্যা ৭টা ১৫ মিনিটে এটি সিলগালা করে দেওয়া হয়।