• বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৩:১০ বিকেল

পুত্রবধূ-নাতনীকে ঝলসিয়ে পালালেন শাশুড়ি

  • প্রকাশিত ০৬:৪১ সন্ধ্যা এপ্রিল ২৯, ২০১৯
নারী নির্যাতন
প্রতীকী ছবি

অ্যাসিড হামলার শিকার সমাপ্তির স্বামী মিল্টন মণ্ডল বলেন, 'আমি যে মায়ের গর্ভে জন্মগ্রহণ করেছি তাকে নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।'

মাদারীপুরের রাজৈর উপজেলায় পুত্রবধূ ও নাতনীকে অ্যাসিডে ঝলসানোর অভিযোগ উঠেছে শাশুড়ির বিরুদ্ধে। এর পর থেকেই পলাতক রয়েছেন শাশুড়ি গীতা মণ্ডল। 

গতকাল রোববার দিবাগত রাতে উপজেলার সাতপাড় গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।   

আজ সোমবার সকালে এসিডে ঝলসানো গৃহবধূ সমাপ্তি মণ্ডল (২১) ও তার ছয় মাস বয়সী মেয়ে স্নিগ্ধাকে উন্নত চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

খোঁজ নিয়ে জানা যায়, সাতপাড় গ্রামে পারিবারিক কলহের জের ধরে রোববার গভীর রাতে গীতা মণ্ডল ঘুমন্ত পুত্রবধূ ও নাতনীকে লক্ষ্য করে অ্যাসিড নিক্ষেপ করেন। আহত অবস্থায় তাদের দুজনকে উদ্ধার করে প্রথমে রাজৈর ও পরে ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। 

এ বিষয়ে অ্যাসিড হামলার শিকার সমাপ্তির স্বামী মিল্টন মণ্ডল মোবাইল ফোনে বলেন, 'আমি আমার স্ত্রী ও মেয়েকে নিয়ে চিকিৎসার জন্য ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে আছি। আমি যে মায়ের গর্ভে জন্মগ্রহণ করেছি তাকে নিয়ে কোনো মন্তব্য করতে চাই না।'

রাজৈর হাসপাতালের চিকিৎসক হামিদা আক্তার জানান, সোমবার সকালে এক গৃহবধু ও তার মেয়ে অ্যাসিডে দ্বগ্ধ হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়। উন্নত চিকিৎসার জন্য তাদের ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

রাজৈর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শাহজাহান জানান, অ্যাসিড নিক্ষেপের খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পুলিশ পাঠানো হয়েছিল। গীতা মণ্ডল এ ঘটনা ঘটিয়েছে বলে জানা গেছে। তাকে গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।