• মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০৩ রাত

কলেজ ছাত্রীর চুল কেটে নিল বখাটেরা

  • প্রকাশিত ১২:৫৪ দুপুর মে ২৩, ২০১৯
ভোলা
ভোলার মানচিত্র।

বিব্রত কলেজছাত্রীর পরিবার যুবকদের ফোনটি ব্লাকলিস্ট করে দেয়। এবং তাদের পরিবারকে বিষয়টি জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গভীর রাতে ঘুমন্ত ওই ছাত্রীর চুলের দুই তৃতীয়াংশ কেটে দেয় তারা।

ভোলার চরফ্যাশন উপজেলার ফাতেমা মতিন মহিলা কলেজের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী এক ছাত্রীর মাথার চুল কেটে দিয়েছে বখাটেরা।  

গত ১৬, মে বৃহস্পতিবার রাতে এ ঘটনা ঘটে। ঘটনায় ২২ মে, বুধবার ওই কলেজছাত্রী বাদী হয়ে চরফ্যাশন থানায় একটি মামলা দায়ের করেছে।  

মামলা  ও  পরিবার সূত্রে জানা যায়, ১৬ মে রাত সাড়ে ৩টায় চরফ্যাশন পৌরসভার ৩নং ওয়ার্ডের ওই ছাত্রী বসতঘরে ঘুমিয়ে ছিল। এ অবস্থায় বাইরে থেকে জানালা দিয়ে  চুল  কেটে নেওয়ার ঘটনা ঘটে।

ভুক্তভোগী কলেজ ছাত্রী লিখিত এজাহারে দাবি করেছেন তারই প্রতিবেশী হিরণ চন্দ্র শীলের ছেলে সাগর শীল(১৯),মিঠুন শীল এবং রতন পাল পরস্পর বন্ধু। বন্ধুত্বের সুবাদে মিঠুন ও রতন প্রায়ই প্রতিবেশী সাগরদের বাসায় আসা যাওয়া করতো। কলেজপড়ুয়া এই তিনবন্ধু কলেজে আসা যাওয়ার পথে প্রীতিকে উত্ত্যক্ত করতো এবং প্রীতির মায়ের ব্যবহৃত মোবাইল ফোনে কল দিয়ে বিরক্ত করতো। বিব্রত কলেজছাত্রীর পরিবার যুবকদের ফোনটি ব্লাকলিস্ট করে দেয়। এবং তাদের পরিবারকে বিষয়টি জানায়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে গভীর রাতে ঘুমন্ত ওই ছাত্রীর চুলের দুই তৃতীয়াংশ কেটে দেয় তারা।

পরে স্থানীয় ভাবে সমঝোতার দীর্ঘ চেষ্টায় ব্যর্থ হয়ে বুধবার বিকেলে অভিযুক্ত তিনজনের বিরুদ্ধে ওই ছাত্রী মামলা করে। 

অভিযুক্তরা  পলাতক থাকায় বক্তব্য জানা যায়নি।

এ বিষয়ে চরফ্যাশন থানার ওসি সামসুল আরেফীন বলেন, “লিখিত এজাহার পাওয়া গেছে। অভিযুক্ত সাগর, মিঠুন এবং রতনকে আসামি করে মামলা দায়ের করা হয়েছে। আসামিদের গ্রেপ্তার করতে পুলিশের একাধিক টিম মাঠে নেমেছে।”