• সোমবার, জুন ২৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৪৬ সন্ধ্যা

এসএসসি পাশ না করেই এমবিবিএস ডাক্তার!

  • প্রকাশিত ০৫:০২ সন্ধ্যা জুন ১২, ২০১৯
মাদারীপুর ভূয়া ডাক্তার
মাদারীপুরে র‍্যাবের অভিযানে আটক ভূয়া চিকিৎসক এমদাদ প্যাদা ঢাকা ট্রিবিউন

তার কাছ থেকে বিপুল পরিমাণ যৌন উত্তেজক ওষুধ উদ্ধার করেছে র‍্যাব।

চিকিৎসাশাস্ত্রে ডিগ্রি তো দূরের কথা, মাধ্যমিকের গণ্ডিও পেরোননি তিনি। কিন্তু নামের শেষে যোগ করেছেন ‘এমবিবিএস ডিগ্রি’! দীর্ঘদিন ধরে এভাবেই মাদারীপুরের কালকিনি উপজেলায় চিকিৎসার নামে প্রতারণা করে আসছিলেন তিনি। অবশেষে ফাঁস হয়েছে তার পরিচয়, আইনশৃঙ্খলা বাহিনী আটক করেছে এমদাদ প্যাদা (৫০) নামে এই ভূয়া চিকিৎসককে।

মঙ্গলবার (১২ জুন) সন্ধ্যায় উপজেলার খাসেরহাট বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে এমদাদকে আটক করা হয়। এ সময় উদ্ধার করা হয়েছে বিপুল পরিমাণ যৌন উত্তেজক ওষুধ। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালতের মাধ্যমে তাকে এক বছরের বিনাশ্রম কারাদণ্ডের সাজা দিয়েছেন উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আব্দুস সামাদ শিকদার।

বুধবার দুপুরে এক প্রেস ব্রিফিংয়ে র‍্যাব জানায়গোপন সংবাদের ভিত্তিতে কালকিনি উপজেলার খাসেরহাট বাজার এলাকায় অভিযান চালিয়ে ভূয়া চিকিৎসক এমদাদ প্যাদাকে আটক করা হয়। চিকিৎসা শাস্ত্রে কোনো ডিগ্রি, এমনকি এসএসসি পাশ না করেই নিজেকে ডাক্তার হিসেবে পরিচয় দিয়ে এলোপ্যাথি, আয়ুর্বেদীসহ বিভিন্ন ধরনের ওষুধ দিয়ে চিকিৎসা দিয়ে আসছিলেন।

র‍্যাব আরও জানায়, যে কোনো সাধারণ রোগেও স্টেরয়েড ইনজেকশন ও ট্যাবলেটের সহায়তায় চিকিৎসা দিতেন এমদাদ। এসব ওষুধ মানব দেহের জন্য বিপজ্জনক। অভিযানে তার চেম্বার থেকে বিপুল পরিমাণ যৌন উত্তেজক ওষুধ উদ্ধার করা হয়েছে।

এ বিষয়ে র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের ভারপ্রাপ্ত কোম্পানি কমান্ডার মো. ইফতেখারুজ্জামান বলেনজিজ্ঞাসাবাদে অপরাধের কথা স্বীকার করেছেন এমদাদ। আটকের পরে তাকে ভ্রাম্যমাণ আদালতে হাজির করা হলে বিচারক তাকে এক বছরের দণ্ডাদেশ দেন।