• রবিবার, জুন ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:২৬ রাত

শ্রীমঙ্গলে সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় বাবাকে পিটালো সন্তান

  • প্রকাশিত ০২:৫৬ দুপুর জুন ১৩, ২০১৯
মৌলভীবাজার
মৌলভীবাজারে সম্পত্তির লোভে বাবাকে পিটালো দুই মাদকসেবী সন্তান। ঢাকা ট্রিবিউন

‘আমার বড় পুত্র জুয়েল মিয়া একজন মাদক সেবনকারী। প্রায়ই নেশাগ্রস্থ হয়ে বাড়িতে এসে সম্পত্তি ভাগ করে না দেয়ায় আসবাবপত্র ভাংচুর করে, আমি তাকে বাধা দিলে আমাকেও মারধর করে’

মৌলভীবাজারের শ্রীমঙ্গল উপজেলায় সম্পত্তি লিখে না দেওয়ায় বাবা আবদুল ওয়াহিদ (৬৮) কে পিটিয়ে আহত করেছে দুই ছেলে।

মঙ্গলবার (১১ জুন) বিকেলে শহরতলীর সিন্দুরখান ইউনিয়নে নিজ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। এরপর আবদুল ওয়াহিদকে  আহতাবস্থায় উদ্ধার করে শ্রীমঙ্গল উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয় বলে ঢাকা ট্রিবিউনকে নিশ্চিত করেছেন শ্রীমঙ্গল থানার ওসি মো.আব্দুস ছালেক।

আবদুল ওয়াহিদ ওইদিন রাতেই দুই ছেলে শামীম আহমেদ (২৫) ও জুয়েল মিয়া (২২)  বিরুদ্ধে শ্রীমঙ্গল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন। 

আবদুল ওয়াহিদ জানান, “আমার বড় পুত্র জুয়েল মিয়া একজন মাদক সেবনকারী। প্রায় সময় মাদক সেবন করে নেশাগ্রস্থ হয়ে বাড়িতে এসে সম্পত্তি ভাগ করে না দেয়ায় আসবাবপত্র ভাঙচুর করে। আমি তাকে বাধা দিলে আমাকেও মারধর করে।”

তিনি বলেন, “অন্যদিনের মতো মঙ্গলবার বিকেলেও স্ত্রীর পরামর্শে বড় ছেলে জুয়েল মিয়া ও শামীম আহমেদ আমাকে মারধর করে রক্তাক্ত করে। ওরা আমার হাত ভেঙে দিয়েছে।”

স্থানীয় সিন্দুর খান ইউনিয়নের ইউপি সদস্য তারেক আহমেদ জানান, আব্দুল ওয়াহিদের ছেলে নেশাগ্রস্থ হয়ে সম্পত্তির লোভে প্রায়ই তাকে মারধর করতো। মঙ্গলবার খুব বেশি মারধর করেছে। খবর পেয়ে আমরা কয়েকজন গিয়ে তাকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করে চিকিৎসা দিয়েছি।

শ্রীমঙ্গল থানা অফিসার ইনচার্জ মো. আব্দুস ছালেক জানান, “ওই ঘটনার পর আব্দুল ওয়াহিদ শ্রীমঙ্গল থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছেন। অভিযুক্ত আসামিদের  গ্রেফতারের জন্য অভিযান চলছে।”