• বুধবার, নভেম্বর ১৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৩৮ রাত

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় কৃত্রিম উপায়ে ২৬টি অজগর বাচ্চার জন্ম

  • প্রকাশিত ০৪:০৬ বিকেল জুন ১৪, ২০১৯
অজগর
কৃত্রিম উপায়ে জন্ম নেওয়া অজগরের বাচ্চা। ছবি: সংগৃহীত

‘আমি যতটুকু জানি, দেশে কোনো চিড়িয়াখানায় এভাবে সাপের ডিম সংগ্রহ করে বাচ্চা উৎপাদন করা হয়নি। অজগরের ডিম থেকে কৃত্রিম উপায়ে আমরাই প্রথম বাচ্চা ফোটাতে সক্ষম হয়েছি।’

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানায় দেশে প্রথমবারের মতো কৃত্রিম উপায়ে ২৬টি অজগর সাপের বাচ্চার জন্ম হয়েছে।

১৩ জুন, বৃহস্পতিবার অজগরের ডিম ফুটে ২৬টি বাচ্চা বেরিয়ে আসে।

চিড়িয়াখানা কর্তৃপক্ষ জানায়, চিড়িয়াখানায় সাপের খাঁচায় মোট ২০টি অজগর আছে। তারা ৩৫টি ডিম পাড়লে তা সংগ্রহ করে হাতে তৈরি ইনকিউবেটরে ৬০ দিন ধরে বিভিন্ন তাপমাত্রায় রাখা হয়। এরমধ্যে নয়টি ডিম নষ্ট হলেও ২৬টি ডিম ফুটে অজগর ছানা জন্ম নিয়েছে।

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানার ডেপুটি কিউরেটর ও চিকিৎসক শাহাদাৎ হোসেন শুভ বলেন, “সাপের ছানাগুলো ইনকিউবিটরে রাখা হয়েছে। ১৫ দিন পর তারা চামড়া বদল করবে। তিন মাস পর্যবেক্ষণে রাখার পর এসব সাপ প্রাকৃতিক বন বা অভয়ারণ্যে ছেড়ে দেওয়া হবে।”

তিনি বলেন, “আমি যতটুকু জানি, দেশে কোনো চিড়িয়াখানায় এভাবে সাপের ডিম সংগ্রহ করে বাচ্চা উৎপাদন করা হয়নি। অজগরের ডিম থেকে কৃত্রিম উপায়ে আমরাই প্রথম বাচ্চা ফোটাতে সক্ষম হয়েছি।”

চট্টগ্রাম চিড়িয়াখানা পরিচালনা (নির্বাহী) কমিটির সদস্য সচিব ও হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা রুহুল আমিন বলেন, “এই সাপগুলো ৩ মাস পরে প্রাকৃতিক অভয়ারণ্যে কিংবা ইকোপার্কে ছেড়ে দেওয়া হবে।”

চিড়িয়াখানা শুধু বিনোদনের স্থান নয়, বরং শিক্ষা এবং গবেষণা নিয়েও কাজ করে বলে জানান তিনি।