• শনিবার, নভেম্বর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩২ রাত

পানি খাওয়ার কথা বলে খেলেন সোনার হার

  • প্রকাশিত ০৫:২৮ সন্ধ্যা জুন ১৪, ২০১৯
আটক
নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় এক বৃদ্ধার সোনার হার ছিনিয়ে নিয়ে গলাধঃকরণ করার ঘটনা ঘটনায় অভিযুক্ত পাঁচ নারীকে আটক করেছে পুলিশ। ছবি : ঢাকা ট্রিবিউন

শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে কয়েকজন নারী ওই বাড়িতে গিয়ে পানি পান করতে চান।

নাটোরের বড়াইগ্রাম উপজেলায় পানি খাওয়ার কথা বলে বাড়িতে প্রবেশের পর এক বৃদ্ধার সোনার হার ছিনিয়ে নিয়ে গলাধঃকরণ করার ঘটনা ঘটেছে। এ ঘটনায় অভিযুক্ত পাঁচ নারীকে আটক করেছে পুলি

আজ শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার বনপাড়া বাজারের পাশে দুলাল হাসানের বাড়িতে এ ঘটনা ঘটে। 

আটক নারীরা হলেন, পাবনার মুলাডুলি এলাকার আয়েশা বেগম, একই এলাকার আঁখি আক্তার, সাভারের তাসলিমা এবং একই এলাকার জান্নাত ও ফাতেমা।

বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের ইনচার্জ নাজমুল হক বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, দুলাল হাসানের বাড়িতে সম্প্রতি বেড়াতে যান তার শাশুড়ি হাসিনা বেগম। শুক্রবার দুপুর ১২টার দিকে কয়েকজন নারী ওই বাড়িতে গিয়ে পানি পান করতে চান। এ সময় হাসিনা বেগম তাদের পানি এনে দেন। পানি পানের এক পর্যায়ে এক নারী হাসিনা বেগমের গলা থেকে সোনার হার ছিনিয়ে নিয়ে গিলে ফেলেন। 

এরপর ওই নারীরা পালানোর চেষ্টা করলে হাসিনা বেগম চিৎকার করেন। তার চিৎকারে পরিবার ও এলাকার লোকজন এসে ওই নারীদের আটক করে। খবর পেয়ে বনপাড়া পুলিশ তদন্ত কেন্দ্রের একদল সদস্য ঘটনাস্থলে পৌঁছে তাদের আটক করেন।

নাজমুল হক আরও জানান, আসামিদের দুপুরের পরপর বড়াইগ্রাম পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।

বড়াইগ্রাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দিলীপ কুমার দাস জানান, আসামিরা প্রতারক চক্রের সদস্য। আটককৃতদের মধ্যে আয়েশা আক্তার সোনার হার গলধঃকরণের করার কথা স্বীকার করেছেন। হারটি উদ্ধারের চেষ্টা করছেন তারা।