• শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:৫২ রাত

পথচারী হত্যায় সাজাপ্রাপ্ত চালক ১১ বছর পর গ্রেপ্তার

  • প্রকাশিত ০৮:৫৩ রাত জুন ২৩, ২০১৯
কারাবন্দি
প্রতীকী ছবি

২০০৮ সালে পতেঙ্গায় ওই চালকের ট্রাকের নিচে চাপা পড়ে মারা যান এক পথচারী

১১ বছর আগে বেপরোয়া গতিতে ট্রাক চালিয়ে পথচারী হত্যার ঘটনায় সাজাপ্রাপ্ত পলাতক মাহবুব নামে এক চালককে ফেনীর সোনাগাজি থেকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

রবিবার সোনাগাজী উপজেলার মাঝিস্ট্যান্ড এলাকায় সোনাগাজী-মুহুরি প্রকল্প সড়ক থেকে ওই ট্রাক চালককে গ্রেপ্তার করা হয়। গ্রেপ্তারকৃত মো. মাহবুব ওরফে ‘মাবুব ড্রাইভার’ (২৮) সোনাগাজী পৌরসভার চরগণেশ এলাকার নুরুল হকের ছেলে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, দীর্ঘদিন পলাতক থাকার পর সম্প্রতি বাড়ি আসেন মাহবুব। তার বাড়ি আসার খবর পেয়ে সোনাগাজী মডেল থানার উপপরিদর্শক (এসআই) মো. নুরুল করিমের নেতৃত্বে পুলিশ অভিযান চালিয়ে পৌরসভার মাঝি স্ট্যান্ড এলাকা থেকে তাঁকে গ্রেপ্তার করে থানায় নিয়ে আসেন। ২৩ জুন রোববার বিকালে আদালতের মাধ্যমে মাহবুবকে ফেনীর কারাগারে পাঠানো হয়।

সোনাগাজী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাঈন উদ্দিন ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, " ২০০৮ সালে পতেঙ্গায় মাহবুবের ট্রাকের নিচে পড়ে আহত হন এক পথচারী। হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ঘটনার সপ্তাহখানেক পর ওই ব্যক্তি মারা যান। শুরুতে চালক মাহবুবের বিরুদ্ধে কোনো মামলা হয়নি। তবে ওই পথচারী মারা যাওয়ার পর মাহবুবের বিরুদ্ধে দণ্ডবিধির তিনটি ধারায় মামলা হয়। এর মধ্যে আদালত দণ্ডবিধির ২৭৯ ধারায় বেপরোয়া গাড়ি চালানো বা আরোহণের দায়ে তিন বছর চার মাস, ৩৩৮ (ক) ধারায় জনপথে বেপরোয়া গাড়ি চালিয়ে গুরুতর আঘাতের দায়ে দুই বছর এবং ৩০৪ (খ) ধারায় বেপরোয়া যান চালিয়ে মৃত্যু ঘটানোর অপরাধে তিন বছরের কারাদণ্ড দেন। ফলে মোট ৮ বছর চার মাসের সাজা হয় মাহবুবের"।