• শুক্রবার, আগস্ট ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:০৩ বিকেল

৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে ‘ধর্ষককে’ আটক করলো পুলিশ

  • প্রকাশিত ০৫:৩৬ সন্ধ্যা জুন ২৮, ২০১৯
ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি।

পরীক্ষা শেষে বাসায় ফিরে মেয়ে তার কাছে খাবার চায়। ঘরে খাবার না থাকায় তিনি মেয়েকে এলাকার দোকানে খাবার কিনতে পাঠান। পথে বারেক তার মেয়েকে আম ও বিস্কুট দেওয়ার কথা বলে তার বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করে।

৯৯৯ নম্বরে ফোন পেয়ে বরিশাল কোতোয়ালি মডেল থানা পুলিশ ধর্ষণের অভিযোগে বারেক হাওলাদার নামে এক ব্যক্তিকে আটক করেছে। বারেক নগরীর রসুলপুর কলোনির বাসিন্দা। তার বিরুদ্ধে রসুলপুরের আনন্দ স্কুলের চতুর্থ শ্রেণির ছাত্রীকে ধর্ষণের অভিযোগ পাওয়া গেছে। কোতোয়ালি মডেল থানার ওসি নুরুল ইসলাম একথা জানিয়েছেন।

২৭ জুন, বৃহস্পতিবার দুপুরে এ ঘটনা ঘটে। ওইদনি বিকালে পুলিশের বারেককে আটক করে। পরে ২৮ জুন, শুক্রবার শিশুটির মা বাদী হয়ে এ ঘটনায় মামলা করেছেন। খবর বাংলা ট্রিবিউনের।

শিশুটির মা জানান, পরীক্ষা শেষে বাসায় ফিরে মেয়ে তার কাছে খাবার চায়। ঘরে খাবার না থাকায় তিনি মেয়েকে এলাকার দোকানে খাবার কিনতে পাঠান। পথে বারেক তার মেয়েকে আম ও বিস্কুট দেওয়ার কথা বলে তার বাসায় নিয়ে ধর্ষণ করে। মেয়ে ঘরে ফিরে ঘটনাটি জানালে তিনি এক প্রতিবেশীকে জানান। এরপর ৯৯৯ নম্বরে কল করে অভিযোগ দেওয়ার পরপরই পুলিশে বারেককে আটক করে থানায় নিয়ে যায়।

এ ব্যাপারে ওসি নুরুল ইসলাম বলেন, “৯৯৯ নম্বরে অভিযোগ পেয়ে রসুলপুর কলোনিতে অভিযান চালিয়ে বারেককে আটক করা হয়। শিশুটির মায়ের করা মামলায় বারেককে গ্রেফতার দেখিয়ে আদালতে সোপর্দ করার প্রক্রিয়া চলছে।”