• সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:২৭ দুপুর

সিন্ডিকেটের মাধ্যমে ধান কিনছেন ইউএনও, বিক্ষুব্ধ কৃষকরা

  • প্রকাশিত ০৮:০২ রাত জুলাই ১, ২০১৯
সিরাজগঞ্জ কৃষক বিক্ষোভ
সিন্ডিকেটের কাছ থেকে ধান কেনার প্রতিবাদে সিরাজগঞ্জের তাড়াশে কৃষকদের বিক্ষোভ ঢাকা ট্রিবিউন

প্রকৃত কৃষকদের ধানের মান যাচাই করে কৃষি কার্ডের মাধ্যমে খাদ্য গুদামে ধান কেনার নিশ্চয়তাও দিলেও শেষ পর্যন্ত সেটা বাস্তবায়িত হয়নি

বোরো ধান ধান সংগ্রহ কার্যক্রমের উদ্বোধন উপলক্ষে সম্প্রতি সিরাজগঞ্জে গিয়ে খাদ্যমন্ত্রী সাধন চন্দ্র মজুমদার ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের থেকে ধান সংগ্রহ না করতে প্রশাসনকে সতর্ক করেন। তবে সেই সতর্কতা উপেক্ষা করে জেলার তাড়াশে প্রভাবশালী ব্যবসায়ী সিন্ডিকেটের মাধ্যমেই ধান কিনছেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার ইফ্ফাত জাহান।

মাইকিং করে প্রকৃত কৃষকদের কাছ থেকে হাটে-বাজারে ধান ক্রয়ে তিনি প্রতিশ্রুতি দিলেও শেষ পর্যন্ত তিনি তা রাখতে পারেনি। প্রকৃত কৃষকদের ধানের মান যাচাই করে কৃষি কার্ডের মাধ্যমে খাদ্য গুদামে ধান কেনার নিশ্চয়তাও দিলেও শেষ পর্যন্ত সেটা বাস্তবায়িত হয়নি। বরং ইউএনও নিজেই মিল মালিক ও ব্যবসায়ীদের কাছ থেকেই ধান কিনছেন। 

এমন অভিযোগ এনে ইউএনও'র বিরুদ্ধে সোমবার (১ জুলাই) দুপুরে উপজেলা প্রেসক্লাব চত্বরে বিক্ষোভ মিছিল ও মানববন্ধন করেছেন তাড়াশের দুই শতাধিক কৃষক। 

মানববন্ধনের এক পর্যায়ে সংক্ষিপ্ত সভায় বক্তব্য রাখেন তাড়াশ উপজেলা কৃষকলীগের সভাপতি কাজী গোলাম মোস্তফা, সাধারণ সম্পাদক রাশেদুল হাসান রিন্টু, বারুহাঁস ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুর রাজ্জাক, তালম ইউনিয়ন কৃষকলীগের সাধারণ সম্পাদক আব্দুস সামাদ, দেশীগ্রাম ইউনিয়ন কৃষকলীগের সভাপতি আব্দুল হালিম, প্রান্তিক কৃষক ছাইফুল ইসলাম, আব্দুস সালাম, মোক্তার হোসেন প্রমূখ। তারা অবিলম্বে খাদ্যমন্ত্রীর দৃষ্টি আকর্ষণ করেন। 

তবে এ বিষয়ে জানতে চাইলে ইউএনও ইফ্ফাত জাহান সাংবাদিকদের বলেন, সরকারি নীতিমালার বাইরে আমি কোন ধান কিনিনি। 

তাড়াশে সাধারণ কৃষকদের বিক্ষোভ ও মানববন্ধনের বিষয়টি সম্পর্কে তারাও অবগত বলে ঢাকা ট্রিবিউনকে জানিয়েছেন অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক ফিরোজ মাহমুদ।