• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১৪ রাত

প্রেমিকাকে বিয়ে করতে স্ত্রীকে হত্যা!

  • প্রকাশিত ১০:১২ রাত জুলাই ৪, ২০১৯
রাসেল মিয়া
নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায় প্রেমিকাকে বিয়ে করতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে রাসেল মিয়া নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। ছবি : ঢাকা ট্রিবিউন

রাসেল তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দেন। কিন্তু তার প্রেমিকা বিয়ে করতে হলে স্ত্রীকে ডিভোর্স অথবা হত্যা করতে হবে বলে জানিয়ে দেয়।

নরসিংদীর রায়পুরা উপজেলায় প্রেমিকাকে বিয়ে করতে স্ত্রীকে হত্যার অভিযোগ উঠেছে রাসেল মিয়া নামের এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে। এ ঘটনায় তাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। 

বুধবার (৩ জুলাই) বিকেলে উপজেলার চরআড়ালিয়া ইউনিয়নের চরআড়ালিয়া গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।   

নিহত মরিয়ম আক্তার (১৯)চর আড়ালিয়া গ্রামের মো. শাহ আলমের মেয়ে ও অভিযুক্ত রাসেল মিয়া একই গ্রামের নয়ন মিয়ার ছেলে।

এঘটনায় নিহত মরিয়মের বাবা শাহ আলম বাদী হয়ে বুধবার রাতেই রায়পুরা থানায় রাসেলকে আসামি করে একটি হত্যা মামলা করেন। গ্রেপ্তার রাসেল প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে তার স্ত্রীকে শ্বাসরোধ করে হত্যার কথা স্বীকার করেছেন বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ জানায়, তিন মাস আগে পারিবারিকভাবে রাসেলের সঙ্গে মরিয়মের বিয়ে হয়। বিয়ের আগে থেকেই একই গ্রামের অন্য এক নারীর সঙ্গে রাসেলের প্রেমের সর্ম্পক ছিল। 

পুলিশি জিজ্ঞাসাবাদে রাসেল জানান, তিনি তার প্রেমিকাকে বিয়ের প্রস্তাব দিলে তার প্রেমিকা বিয়ে করতে হলে স্ত্রীকে ডিভোর্স অথবা হত্যা করতে হবে বলে জানিয়ে দেয়। এরই জের ধরে স্ত্রীর গলায় গামছা দিয়ে পেঁচিয়ে শ্বাসরোধ করে হত্যা করেন রাসেল। পরে লাশ নদীতে ফেলে দেন।

স্ত্রীকে হত্যার পর রাসেলের গতিবিধি প্রতিবেশীদের সন্দেহ হলে তারা পুলিশকে খবর দেয়। পুলিশ তাকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করে। পরে তার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে চরআড়ালিয়ার মেঘনা নদী থেকে মরিয়মের লাশ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য নরসিংদী সদর হাসপাতার মর্গে পাঠানো হয়।

রায়পুরা থানার পুলিশ পরির্দশক মো. মোজাফ্ফর হোসেন বলেন, এ ঘটনায় নিহতের বাবা বাদী হয়ে থানায় মামলা করেছেন। প্রাথমিক জিজ্ঞাবাদে রাসেল হত্যার কথা স্বীকার করেছে।