• বুধবার, জুলাই ২৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১২:৪৪ রাত

মায়ের হাত ভাঙার মামলায় ছেলে কারাগারে

  • প্রকাশিত ০৮:৫২ রাত জুলাই ৬, ২০১৯
কারাবন্দি
প্রতীকী ছবি

এর আগেও টাকার জন্য নিজের বাবা-মাকে নানাভাবে হয়রানি করেছেন তিনি

কুমিল্লার লাকসামে বৃদ্ধ মাকে মেরে হাত ভেঙ্গে দেওয়ার মামলায় ছেলে জসিম উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ। গুরুতর আহত রহিমা বেগম (৬৫) চিকিৎসার জন্য লাকসাম সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

গত বুধবার উপজেলার আজগরা ইউপির কালিয়াচো গ্রামে এই ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেন লাকসাম থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) নিজাম উদ্দিন। শনিবার এই ঘটনায় পিতা নুর মোহাম্মদ বাদি হয়ে ছেলে জসিমসহ ৩ জনকে আসামি করে লাকসাম থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

মামলার অভিযোগ সূত্রে জানা যায়, গত ৩ জুলাই উপজেলার আজগরা ইউপির কালিয়াচো গ্রামের নুর মোহাম্মদের বড় ছেলে জসিম উদ্দিন(৪০), তার স্ত্রী শহিদ বেগম(৩৫), নাতনী লিমা আক্তারের(১৮) সাথে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে বাকবিতন্ডা হয় রহিমা বেগমের। এর এক পর্যায়ে পুত্রবধূ শহিদা বেগম বৃদ্ধা রহিমা বেগমকে আঘাত করেন। এসময় তিনি মাটিতে পড়ে গেলে তার হাত ভেঙে যায়।

গুরুতর আহত রহিমা বেগমকে লাকসাম সরকারি হাসপাতালে ভর্তি করে। এই ঘটনায় পুলিশ শনিবার জসিম উদ্দিনকে আটক করে আদালতের মাধ্যমে জেল হাজতে প্রেরণ করে।

অভিযুক্তের পিতা নুর মোহাম্মদ আরো জানায়, গত কয়েক মাস পূর্বে জসিম আমার কাছে টাকা পাওয়ার অজুহাতে মিথ্যা মামলা দিয়ে আমাকে ও পারিবারের লোকজনকে নানা ভাবে হয়রানি করে।

এ প্রসঙ্গে ওসি নিজাম উদ্দিন বলেন, "আদালতের মাধ্যমে জসিমকে কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত করে পরবর্তী পদক্ষেপ নেওয়া হবে।"