• বুধবার, অক্টোবর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:১৭ সকাল

মাদকাসক্ত ছেলের হাতুড়ির আঘাতে মায়ের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ১০:৪০ সকাল জুলাই ৮, ২০১৯
হাতুড়িপেটা
প্রতীকী ছবি

ঘটনাটিকে আত্মহত্যা হিসেবে চালিয়ে দেয়ার জন্য লাশের গলায় রশি পেঁচিয়ে ঝুলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেন অভিযুক্ত সালেক

রাজশাহীর গোদাগাড়ী পৌর এলাকায় মাদকাসক্ত ছেলের হাতুড়ির আঘাতে মায়ের মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। রবিবার রাত পৌনে ১০টার দিকে গোদাগাড়ী পৌরসভার ৫ নম্বর ওয়ার্ডের চাইপাড়া আরিচপুর গ্রামে এ ঘটনা ঘটে।

নিহত সেলিনা বেগম (৫০) ওই এলাকার মো. শাহাবুদ্দিনের স্ত্রী। ঘটনার পর অভিযুক্ত আবদুস সালেক (৩২) বাড়ি থেকে পালিয়ে গেছেন। তিনি রাজশাহী কলেজ থেকে মাস্টার্স পাস করে একটি বেসরকারি কোম্পানিতে চাকরি করতেন। পরে মাদক সেবনের কারণে তার চাকরি চলে যায়।

গোদাগাড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) জাহাঙ্গীর আলম জানান, সালেক প্রায়ই মাদক সেবনের জন্য বাড়ি থেকে জোর করে টাকা আদায় করতো। রবিবার রাতে তার বাবা বাড়িতে নেই, এই সুযোগে তার মার কাছ থেকে টাকা চায়। তার মা টাকা দিতে অপরাগতা জানালে সালেক তাকে হাতুড়ি দিয়ে মারতে মারতে মেরে ফেলে।

পরে সালেক ঘটনাটিকে আত্মহত্যা হিসেবে চালিয়ে দেয়ার জন্য লাশের গলায় রশি পেঁচিয়ে ঝুলিয়ে দেয়ার চেষ্টা করেন। কিন্তু প্রতিবেশীরা দেখে ফেললে তিনি পালিয়ে যান।

প্রতিবেশীদের কাছ থেকে খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে লাশ উদ্ধার করে পুলিশ। এ সময় নিহতের মাথা থেকে রক্ত ঝরছিল। ঘটনাস্থলে হাতুড়িও পড়ে ছিল।

ওসি জাহাঙ্গীর আলম  এ প্রসঙ্গে বলেন, "নিহতের মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য রাজশাহী মেডিক্যাল কলেজ (রামেক) হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। ময়নাতদন্ত শেষে আইনানুক ব্যবস্থাগ্রহণ করা হবে। সেই সাথে সালেক আটকের চেষ্টা অব্যাহত রয়েছে।"