• রবিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০০ রাত

মাদকাসক্ত ছেলেকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে পিতা আটক

  • প্রকাশিত ০৪:৩৮ বিকেল আগস্ট ২, ২০১৯
আটক
প্রতীকী ছবি

ঘটনার পর থেকেই পলাতক রয়েছেন নিহতের ভাই মতিয়ার

টাঙ্গাইলের নাগরপুরে মাদকাসক্ত ছেলেকে পিটিয়ে হত্যার অভিযোগে পিতা মফিজ উদ্দিনকে আটক করেছে পুলিশ। গেছে। শুক্রবার সকালে উপজেলার সদর ইউনিয়নের কাশাদহ গ্রামে এ ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন নাগরপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আলম চাঁদ।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, উপজেলার কাশাদহ গ্রামের সাবেক ইউপি সদস্য মফিজ উদ্দিনের ছেলে মাসুদ শুক্রবার সকালে তার বাবার কাছে এক লাখ টাকা দাবি করেন। কিন্তু ছেলের আবদার রাখতে তিনি অস্বীকার করেন। এই নিয়ে বাবা-ছেলের মধ্যে তুমুল বাগবিতণ্ডা হয়। এসময় মাসুদ উত্তেজিত হয়ে বাড়ির ফ্রিজ ও আসবাবপত্র ভাংচুর করেন। এতে মফিজ উদ্দিন উত্তেজিত হয়ে ছেলেকে মারধর শুরু করেন। এক পর্যায়ে মাসুদের বড় ভাই মতিয়ার এগিয়ে এসে কোদালের উল্টো দিক দিয়ে মাসুদের মাথায় আঘাত করেন। এতে মাটিতে লুটিয়ে পড়েন মাসুদ।

পরে আশেপাশের লোকজন অচেতন অবস্থায় তাকে উদ্ধার করে প্রথমে নাগরপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে যায়। সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়ার পর কর্তব্যরত চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথে তার মৃত্যু হয়।

নিহত মাসুদ মিয়ার (২০) ভাই এই ঘটনার পর থেকে পলাতক রয়েছেন।

এ ব্যাপারে নাগরপুর থানার ওসি আলম চাঁদ ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "এ ঘটনায় জড়িত থাকার অভিযোগে নিহতের পিতা মফিজ উদ্দিনকে আটক করা হয়েছে। তার ভাই মতিয়ার পলাতক রয়েছে। এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে। নিহতের লাশ ময়নাতদন্তের জন্য টাঙ্গাইল জেনারেল হাসপাতালের মর্গে পাঠানো হচ্ছে।"