• রবিবার, নভেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৪১ রাত

মোবাইলে ছবি তোলা নিয়ে দু'পক্ষের সংঘর্ষে আহত ৩০

  • প্রকাশিত ০৪:৩৯ বিকেল আগস্ট ১৫, ২০১৯
হবিগঞ্জ

বৃহস্পতিবার সকালে এই ঘটনা ঘটে 

হবিগঞ্জের বানিয়াচঙ্গে মোবাইলে ছবি তোলা নিয়ে নিয়ে দু'পক্ষের সংঘর্ষে অন্তত ৩০ জন আহত হয়েছেন। আহতদের মধ্যে গুরুতর অবস্থায় ১৫ জনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। 

বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) সকালে জেলার বানিয়াচঙ্গ উপজেলার খাগাপাশা এলাকায় এই ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন বানিয়াচং থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) রাশেদ মোবারক।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার সকালে উপজেলার খাগাপাশা এলাকায় বাঘাহাতা গ্রামের আবুল মিয়া একটি সরকারি পতিত জমির ছবি তুলছিলেন। তবে, স্থানীয় ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদ আলীর লোকজন তাকে ছবি তুলতে বাধা দেন। এই নিয়ে বাকবিতণ্ডায় জড়িয়ে পড়েন তারা। এসময় আবুল মিয়ার পক্ষ নেন স্থানীয় কয়েকজন। বাক-বিতণ্ডার একপর্যায়ে দু'পক্ষের লোকজন দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র হাতে সংঘর্ষে জড়িয়ে পড়েন। সংঘর্ষে নারীসহ অন্তত ৩০ জন আহত হন। তাদের মধ্যে গুরুতর আহত অবস্থায়  ১৫জনকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। অন্যান্যদের প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়।

এদিকে স্থানীয়রা জানিয়েছেন, দীর্ঘদিন ধরেই ওই সরকারি জায়গাটি দখলের চেষ্টা করে আসছিলেন ইউপি চেয়ারম্যান এরশাদ আলীর লোকজন। আবুল মিয়া ছবি তোলায় তারা সন্দেহ করেন যে তাদের প্রচেষ্টা নস্যাৎ করার চেষ্টা চলছে। এই সন্দেহ থেকেই এই সংঘর্ষের সূত্রপাত।

বানিয়াচং থানার ওসি রাশেদ মোবারক বলেন, "খবর পেয়ে ফের সংঘর্ষ এড়াতে ঘটনাস্থলে অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয় এবং ঘটনার সাথে জড়িতদের গ্রেফতারের চেষ্টা চলছে।"