• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:৪৭ সকাল

ডেঙ্গুতে আরও ৩ জনের মৃত্য

  • প্রকাশিত ০৩:৪২ বিকেল আগস্ট ১৭, ২০১৯
ডেঙ্গু
রাজধানীর সোহরাওয়ার্দি মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসা নিচ্ছেন এক ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী। ছবি: মাহমুদ হোসেন অপু/ঢাকা ট্রিবিউন

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, এ বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৫০ হাজার রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন

ডেঙ্গু জ্বরে আক্রান্ত হয়ে আরও তিন জনের মৃত্যু হয়েছে। এরমধ্যে ঢাকায় দু'জন ও ফরিদপুরে একজন মারা গেছেন। 

ঢাকা: ডেঙ্গু শক সিনড্রোমে আক্রান্ত হয়ে শনিবার দিবাগত রাত (১৭ আগস্ট) ১:২৫ মিনিটের দিকে ঢাকা শিশু হাসপাতালে ছয় মাস বয়সী শিশু আয়াজুর রহমানের মৃত্যু হয়েছে। 

হাসপাতালের ডাক্তার শাহিন শরীফ শিশুটির মৃত্যুর বিষয় নিশ্চিত করে জানান, আয়াজুর রহমানকে ১৪ আগস্ট হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছিল। 

এনিয়ে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে মোট ১১ শিশুর মৃত্যু হল এই হাসপাতালে। 

এদিকে, ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে শুক্রবার বেলা সাড়ে ১২টার দিকে এক নারীর মৃত্যু হয়েছে। 

মৃতের নাম মনোয়ারা বেগম, (৪৫)। তার বাড়ি কিশোরগঞ্জের মিঠামইন উপজেলায়।

মনোয়ারা বেগমের স্বামী সাইফুল ইসলাম জানান, কয়েক সপ্তাহ ধরে মনোয়ারা জ্বরে ভুগছিলেন । মঙ্গলবার তাকে ঢামেক হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। এরপর শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে বৃহস্পতিবার (১৫ আগস্ট) তাকে আইসিইউ'তে পাঠানো হয়। শুক্রবার দুপুরে তার মৃত্যু হয়। 

ডেঙ্গুতে মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করে ঢামেক হাসপাতালের পুলিশ ফাঁড়ির ভারপ্রাপ্ত পরিদর্শক বাচ্চু মিয়া বলেন, "হাসপাতাল থেকে মরদেহ গ্রহণের পর মৃতের আত্মীয়রা বাড়ির পথে রওনা দিয়েছেন।"

ফরিদপুর: ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে শনিবার সকালে সুমন বাশার রাজ (১৮) নামে এক কলেজছাত্রের মৃত্যু হয়েছে।

মাগুরা জেলার চাঁদপুর গ্রামের মিজানুর রহমানের ছেলে সুমন মাগুরা সরকারি কলেজের দ্বাদশ শ্রেণির ছাত্র ছিলেন।

ফরিদপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের সহকারী পরিচালক মোস্তাফিজুর রহমান বুলু জানান, গত ১২ আগস্ট বিকালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সুমন এই হাসপাতালে ভর্তি হন। সুমনের ডেঙ্গুর সংক্রমণ মস্তিষ্কে আঘাত হানে। আজ সকাল পৌনে ১০টার দিকে তার মৃত্যু হয়। আমরা তাকে সুস্থ করতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করেছি।

সুমনের বাবা মিজানুর রহমান জানান, তার তিন ছেলের মধ্যে সে ছিলো সবার বড়। গত ৮ আগস্ট হাসপাতালে রক্ত পরীক্ষা করলে সুমনের ডেঙ্গু রোগ ধরা পড়ে। ৮ আগস্ট প্রথমে তাকে মাগুরা হাসপাতালে ভর্তি হয়। পরে তাকে ফরিদপুর মেডিক্যালে পাঠানো হলে ১২ আগস্ট সেখানে ভর্তি করা হয়।

ফরিদপুর সিভিল সার্জন অফিস সূত্রে জানা গেছে, গত ২৪ ঘণ্টায় ফরিদপুরের বিভিন্ন হাসপাতালে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ৭৩ জন রোগী ভর্তি হয়েছে। এছাড়া শনিবার পর্যন্ত চিকিৎসাধীন রয়েছেন ৩৯৬ জন রোগী। 

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের তথ্য অনুযায়ী, এ বছর ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৫০ হাজার রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন।