• বৃহস্পতিবার, সেপ্টেম্বর ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৫৮ রাত

নোয়াখালীর সুবর্ণচরে এবার কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ

  • প্রকাশিত ০৯:৩৮ রাত আগস্ট ১৭, ২০১৯
ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি।

এ ঘটনায় ২ জনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ

নোয়াখালীর সুবর্ণচর উপজেলার মোহাম্মদপুর ইউনিয়নের চর আলাউদ্দিন গ্রামের বরইতলা এলাকার একটি মাছের খামারে বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় ১৪ বছরের এক কিশোরীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

শনিবার (১৭ আগস্ট) বিকেলে এই ঘটনা ওই নির্যাতিতা কিশোরীর বড় বোন বাদী হয়ে চার জনের নাম উল্লেখ করে চর জব্বার থানায় একটি মামলা দায়ের করেন বলে নিশ্চিত করেছেন চর জব্বার থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাহেদ উদ্দিন।

অভিযুক্ত চার আসামি হলেন চর তোরাব আলী গ্রামের আলী হোসেন ওরফে হোসেন ব্যাপারী, মো. সোহেল, চৌধুরী ও চরলক্ষ্মী গ্রামের দিদার হোসেন। এদেরমধ্যে দুইজনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, বৃহস্পতিবার নিজ বাড়ি থেকে বোনের বাড়ি যাওয়ার পথে অভিযুক্ত চার জন ওই কিশোরীর পথরোধ করে তাকে জোরপূর্বক পাশ্ববর্তী একটি খামার বাড়িতে নিয়ে যায়। পরে, সেখানে তিনজন তাকে গণধর্ষণ করেন। এতে ওই কিশোরী জ্ঞান হারিয়ে ফেললে তাকে ফেলে পালিয়ে যান অভিযুক্তরা।

পরে রাত সাড়ে ১২ টার দিকে ওই কিশোরীকে উদ্ধার করে তার পরিবারের লোকজন। শুক্রবার ভুক্তভোগীকে নোয়াখালী জেনারেল হাসপাতালে ভর্তি করা হয়।

এব্যাপারে চর জব্বার থানার ওসি মো. সাহেদ উদ্দিন বলেন, "শুক্রবার ঘটনা জানার পর আলী হোসেন ওরফে হোসেন ব্যাপারী ও মো. সোহেলকে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য আটক করা হয়। শনিবার মামলা দায়েরের পর আটককৃত ওই দুই জনকে গ্রেফতার দেখানো হয়েছে। অপর আসামিদের গ্রেফতারের চেষ্টা অব্যাহত আছে।"