• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:০২ রাত

আশুলিয়ায় স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণ

  • প্রকাশিত ০৪:৩৪ বিকেল আগস্ট ১৮, ২০১৯
ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি

এই ঘটনায় একজনকে আটক করেছে পুলিশ

রাজধানীর আশুলিয়ায় স্বামীকে আটকে রেখে স্ত্রীকে গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে স্থানীয় ৩ ব্যক্তির বিরুদ্ধে। গত মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) ডেন্ডাবড় এলাকার নতুন পাড়া মহল্লায় ভুক্তভোগীর নিজের বাড়িতে এই ঘটনা ঘটে বলে নিশ্চিত করেছেন আশুলিয়া থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) ফজিকুল হক।

এ ঘটনায় ওই নারী নিজে বাদী হয়ে রবিবার সকালে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। মামলায় অভিযুক্ত ৩ ব্যক্তি হলেন- ওই এলাকার রনি, জয় ও শামীম। এদের মধ্যে রনিকে গত শনিবার রাতে আটক করা হয়। বাকিরা এখনও পলাতক রয়েছে।

পুলিশ সূত্রে জানা যায়, ভুক্তভোগী নারী উপজাতি হওয়ায় তাদের ঐতিহ্যের অংশ হিসেবে বাড়িতে মাঝে মাঝে চোলাই মদ তৈরি করতেন। বিষয়টি জানতে পেরে অভিযুক্ত ৩ ব্যক্তি গত মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) ভুক্তভোগীর বাড়ি যেয়ে মদ তৈরি করার অভিযোগ তুলে চাঁদা দাবি করেন। এক পর্যায়ে ওই দম্পতির কাছ থেকে নগদ ১০ হাজার টাকা এবং স্বর্ণালঙ্কার ছিনিয়ে নেন অভিযুক্তরা। পরে তারা আরও ২ লাখ টাকা চাঁদা দাবি করেন। এতো টাকা দিতে অপারগতা প্রকাশ করায় ওই ৩ ব্যক্তি ওই নারীর স্বামীকে আটকে রেখে তাকে গণধর্ষণ করে। পরে রবিবার সকালে ভুক্তভোগী নারী নিজে বাদী হয়ে আশুলিয়া থানায় একটি মামলা দায়ের করেন।

এ প্রসঙ্গে আশুলিয়া থানার এসআই ফজিকুল হক বলেন, "গণধর্ষণের অভিযোগে রনি নামের এক যুবককে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনার সাথে জড়িত বাকিদের আটক করার জন্য অভিযান অব্যাহত রয়েছে।"