• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:৩১ রাত

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে আরো ৪ জনের মৃত্যু

  • প্রকাশিত ১২:৪৫ দুপুর আগস্ট ১৯, ২০১৯
ডেঙ্গু
ডেঙ্গু আক্রান্ত রোগী। ছবি: ফোকাস বাংলা

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা, বরিশাল, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এই ৪ জনের মৃত্যু হয়

ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে ঢাকা, বরিশাল, ফরিদপুর ও ময়মনসিংহে আরো চারজনের মৃত্যু হয়েছে। 

রবিবার (১৮ আগস্ট) দিবাগত রাত থেকে শুরু করে সোমবার দুপুর ২টা পর্যন্ত এই চারজনের মৃত্যু সংবাদ পাওয়া গেছে।

এরমধ্যে সর্বশেষ সোমবার বেলা ২টায় বরিশালের শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় সুমাইয়া আক্তার নামে সদ্য এইচএসসি পাস বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তিচ্ছু এক শিক্ষার্থীর মৃত্যু হয়েছে। সুমাইয়া পটুয়াখালীর দুমকি উপজেলার জনতা কলেজের সহযোগী অধ্যাপক ফজলুল হকের মেয়ে এবং জাহাঙ্গীরনগর বিশ্ববিদ্যালয়ের সরকার ও রাজনীতি বিভাগের শিক্ষার্থী ৪২তম ব্যাচের শিক্ষার্থী ইমরান ফয়সালের ছোট বোন। 

সুমাইয়ার ভাই ইমরান ফয়সাল জানান, সুমাইয়া বিশ্ববিদ্যালয় ভর্তি কোচিং করতে ঢাকায় এসেছিল। গত ৫ আগস্ট ঈদের ছুটিতে গ্রামে ফিরে গেলে হঠাৎ অসুস্থ হয়ে পড়ে সুমাইয়া। পরে স্বাস্থ্য পরীক্ষা করে জানা যায় সে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত। প্রাথমিকভাবে তাকে স্থানীয় হাসপাতাল ও পরে শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। পরে সোমবার দুপুর ২টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।   

এ ছাড়া সোমবার সকালে রামপুরায় মাশরুফা (১০) নামের এক শিশুর মৃত্যু হয়। মাশরুফা ঠাকুরগাঁওয়ের হরিপুর উপজেলার গেদুড়া ইউনিয়নের বরুয়াল (ধনসোড়া) গ্রামের মোহাম্মদ মোস্তফার মেয়ে। সে হরিপুরের বনগাঁও সানলাইট কিন্ডারগার্টেন স্কুলের পঞ্চম শ্রেণির ছাত্রী ছিল।

মাসরুফার বাবা মোস্তফা মোবাইল ফোনে বলেন, “গত ৩ বছর ধরে আমি ঢাকায় গার্মেন্টসে কাজ করি। বাড়ি ফেরার টিকিট ও সুবিধাজনক ছুটি না পেয়ে এবার পরিবারের সবাই মিলে একসাথে ঈদ উদযাপন করার জন্য আমার স্ত্রী মাজেরা ঈদের দুই দিন আগে ৩ কন্যা সন্তানকে নিয়ে গ্রামের বাড়ি থেকে ঢাকায় আসেন। পরে মাশরুফা অসুস্থ হয়ে পড়লে ১৬ আগষ্ট রামপুরা বনশ্রীর এ্যাডভান্স হাসপাতালে নেওয়া হয়। হাসপাতালের ডাক্তার কামরুল হাসান পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে জানান, মাসরুফা ডেঙ্গুজ্বরে আক্রান্ত হয়েছে। এরপর ডাক্তার কামরুল হাসান ৫ দিনের ঔষধ দিয়ে ১৯ আগষ্ট আবার হাসপাতালে আসতে বলেন। কিন্তু পুনরায় ডাক্তারের কাছে যাওয়ার আগেই আমার মেয়ে মাসরুফা ১৯ আগস্ট ভোর ৬টার দিকে মারা যায়।”

গেদুড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আব্দুল হামিদ মাসরুফার মৃত্যুর বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।

অপরদিকে, ফরিদপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে হোসেন নামে একজন মসজিদের খাদেম এবং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা গেছেন আনোয়ার নামে অপর একব্যক্তি। 

প্রসঙ্গত, শনিবার ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে সকাল ৮টা থেকে রবিবার সকাল ৮টা পর্যন্ত সারাদেশের বিভিন্ন হাসপাতালে নতুন করে ১৭০৬ জন রোগী ভর্তি হয়েছেন।

স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের হেলথ ইমার্জেন্সি অপারেশন সেন্টার ও কন্ট্রোল রুমের সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় ঢাকা শহরে ডেঙ্গুতে আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হয়েছেন ৭৩৪ জন। আর ঢাকার বাইরে ভর্তি রোগীর সংখ্যা ৯৭২ জন।