• সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৪ রাত

স্বামীর সাথে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার স্ত্রী

  • প্রকাশিত ১০:৪৫ রাত আগস্ট ১৯, ২০১৯
ধর্ষণ
প্রতীকী ছবি

এ সময় সেখানে থাকা তিন বখাটে স্বামীকে মারধর করে আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন।

মুন্সীগঞ্জের সিরাজদিখানে স্বামীর সাথে বেড়াতে গিয়ে গণধর্ষণের শিকার হয়েছেন এক স্ত্রী।

গত রবিবার (১৮ আগস্ট) বিকালে উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের পলাশপুর গ্রামের রজতরেখা ডিসি প্রজেক্ট এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। এ সময় একজনকে আটক করে পুলিশে দিয়েছে এলাকাবাসী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, ওই গৃহবধূকে নিয়ে তার স্বামী পলাশপুরের ডিসি প্রজেক্টে ঘুরতে যান। সেখানে থাকা তিন বখাটে স্বামীকে মারধর করে আটকে রেখে গৃহবধূকে ধর্ষণ করেন। এ সময় স্বামীর চিৎকারে এলাকাবাসী ছুটে এসে সোহেল (২৩) নামে একজনকে আটক করেন। তবে অপর দুজন পালিয়ে যান। পরে সোহেলকে পুলিশের হাতে তুলে দেওয়া হয়।

আটক সোহেল কেরানীগঞ্জ উপজেলার বাঘাপুর গ্রামের ওসমান মিয়ার ছেলে।

ঘটনার সত্যতা নিশ্চিত করে সিরাজদিখান থানার ওসি মো. ফরিদ উদ্দিন বলেন, “ধর্ষণের শিকার নারী নিজে বাদী হয়ে সোহেলসহ তিনজনকে আসামি করে একটি মামলা দায়ের করেছেন।”

পুলিশ জানায়, সোহেলের স্বীকারোক্তি অনুযায়ী অপর দুই আসামি হলেন- উপজেলার বাসাইল ইউনিয়নের পলাশপুর গ্রামের সালাউদ্দিনের ছেলে নাসির উদ্দিন এবং একই গ্রামের মৃত খোরশেদ আলমের পুত্র শামীম মিয়া।

ভুক্তভোগী নারীর ডাক্তারি পরীক্ষা করা হয়েছে জানিয়ে ওসি বলেন, “পুলিশ আলামত হিসেবে সোহেলের মোবাইল থেকে ধর্ষণের ভিডিও জব্দ করেছে।”