• মঙ্গলবার, সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৩৯ রাত

‘চুক্তিতে' রাইড শেয়ার করতে গিয়ে চালক খুন

  • প্রকাশিত ০৭:৫৬ রাত আগস্ট ২৬, ২০১৯
হত্যা
প্রতীকী ছবি।

পুলিশের ধারণা, অ্যাপস ছাড়া চুক্তিভিত্তিক রাইড শেয়ার করতে গিয়ে খুন হয়েছেন মিলন

রাজধানীতে রাইড শেয়ার করতে গিয়ে মোটরসাইকেলের যাত্রীবেশী দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে মো. মিলন (৩৫) নামে এক যুবক খুন হয়েছে। 

রবিবার (২৫ আগস্ট) রাত আড়াইটার দিকে মালিবাগ ফ্লাইওভারে মিলনকে ছুরিকাঘাত করে তার মোটরসাইকেল ও মোবাইল নিয়ে পালিয়ে যায় দুর্বৃত্ত। 

দুই সন্তানের জনক নিহত মিলন রাজধানীর মিরপুরের গুদারাঘাট এলাকায় পরিবারসহ থাকতেন।  

এ ঘটনায় শাহজাহানপুর থানায় একটি হত্যা মামলা করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন শাজাহানপুর থানার উপপরিদর্শক আতিকুর রহমান। পুলিশের ধারণা, অ্যাপস ছাড়া চুক্তিভিত্তিক রাইড শেয়ার করতে গিয়ে খুন হয়েছেন তিনি। 

আতিকুর রহমান বলেন, “মিলন রাতে রাজধানীতে নিজের মোটরসাইকেলে উবার ও পাঠাও -এর মাধ্যমে রাইড শেয়ার করতেন। তবে ৭ আগস্ট পর্যন্ত অ্যাপসের মাধ্যমে রাইড শেয়ারের তথ্য পাওয়া যায়। এরপর আর অ্যাপসের মাধ্যমে রাইড শেয়ারের রেকর্ড পাওয়া যায়নি। তবে তিনি চুক্তিতে যাত্রী নিতেন।”

এসআই  বলেন, “রবিবার রাতে মিলন আবুল হোটেলের পাশ দিয়ে উড়াল সড়কে ওঠেন। মালিবাগ থেকে শান্তিনগরে যাওয়ার পথে পদ্মা ডায়াগনস্টিক সেন্টারের ভবনের সামনে উড়ালসড়কে মিলনকে ছুরিকাঘাত করা হয় বলে তথ্য পেয়েছি। এরপর তিনি নিজেই গলা চেপে ধরে হাসপাতালের দিকে যাওয়ার চেষ্টা করেন। পথে দুজন পথচারী তাকে নিয়ে যান।”

তিনি আরও বলেন, “যারা অ্যাপসের মাধ্যমে রাইড শেয়ার করেন তাদের অনেকেই এখন চুক্তিতে যাত্রী পরিবহন করেন। এ কারণে কোনো রেকর্ড থাকে না মোবাইলে। অ্যাপসের মাধ্যমে রাইড শেয়ার করলে আসামিদের দ্রুত চিহ্নিত করা যায়। মিলন হয়তো চুক্তিতে যাত্রী নিয়েছিলেন।”

মিলনকে ছুরিকাঘাত করার পর তাকে ঢাকা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে নেওয়া হয়। সেখানে তার অবস্থার অবনতি হলে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে সোমবার ভোরে তার মৃত্যু হয় বলে জানায় পুলিশ। মিলনের গলার ডান পাশে চাকু বা অন্য কোনও ধারালো কিছু দিয়ে টান দেওয়া হয়েছে। গলার ভেতরে অনেক ক্ষত হয়েছে। অতিরিক্ত রক্তক্ষরণেই তার মৃত্যু হয়। নিহত মিলনের ময়নাতদন্ত শেষে মরদেহ পরিবারের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।