• সোমবার, অক্টোবর ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৩ রাত

কারাগারে জি কে শামীমের ৭ দেহরক্ষী

  • প্রকাশিত ১১:০১ রাত সেপ্টেম্বর ২৬, ২০১৯
জি কে শামীম
যুবলীগ নেতা গোলাম কিবরিয়া (জি কে) শামীম। ছবি : সৈয়দ জাকির হোসেন/ ঢাকা ট্রিবিউন

তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত তাদের কারাগারে রাখার আদেশ দিয়েছেন আদালত

অনিয়মের অভিযোগে গ্রেফতার যুবলীগ নেতা জি কে শামীমের ৭ দেহরক্ষীকে অস্ত্রের মামলায় কারাগারে প্রেরণ করা হয়েছে। বৃহস্পতিবার (২৬ সেপ্টেম্বর) ঢাকার মেট্রোপলিটন ম্যাজিস্ট্রেট হাবিবুর রহমান তাদেরকে কারগারে প্রেরণের আদেশ দেন।

জি কে শামীমের ৭ দেহরক্ষী হলেন—দেলোয়ার হোসেন, মুরাদ হোসেন, জাহিদুল ইসলাম, সহিদুল ইসলাম, কামাল হোসেন, সামসাদ হোসেন ও আমিনুল ইসলাম।

এর আগে বৃহস্পতিবার সকালে ৪ দিনের রিমান্ড শেষে আসামিদের হাজির করে মামলার তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কারাগারে আটক রাখার আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা (পরিদর্শক) ফজলুল হক। 

আবেদনে তিনি বলেন, "চার দিনের রিমান্ডে নিয়ে আসামিদের মামলার ঘটনা সংক্রান্তে সুনিবিড়ভাবে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। জিজ্ঞাসাবাদে তারা মামলা সংক্রান্ত গুরুত্বপূর্ণ তথ্য দিয়েছেন। তাদের কাছ থেকে পাওয়া তথ্য মামলার তদন্তকাজে যথেষ্ট সহায়ক হবে। তাদের দেওয়া তথ্য ও নাম-ঠিকানা যাচাই-বাছাই করা হচ্ছে। আসামিরা জামিনে মুক্তি পেলে পালিয়ে যাওয়ার আশঙ্কা রয়েছে।"

এছাড়াও বৃহস্পতিবার এই ৭ আসামির বিরুদ্ধে গুলশান থানায় মানি লন্ডারিং প্রতিরোধ আইনে দায়ের করা আরেক মামলায় গ্রেফতার দেখানোর আবেদন করেন তদন্ত কর্মকর্তা। শুনানি শেষে তাদের গ্রেফতার দেখানোর আবেদন মঞ্জুর করেন ঢাকা মহানগর হাকিম দেবদাস চন্দ্র অধিকারী।

এদিকে একই আদালতে আসামিদের জামিনের আবেদন করেন তাদের আইনজীবী আবদুর রহমান হাওলাদার ও শওকত ওসমান। এর প্রেক্ষিতে আগামী ২৯ সেপ্টেম্বর এই ৭ আসামির জামিন আবেদনের শুনানির দিন ধার্য করেন আদালত।

উল্লেখ্য, গত শুক্রবার (২০ সেপ্টেম্বর) নিজ বাসা থেকে যুবলীগ নেতা জিকে শামীম ও তার ৭ দেহরক্ষীকে আটক করে র‍্যাব। পরে তার কার্যালয়ে অভিযান চালিয়ে নগদ ১ কোটি ৮০ লাখ টাকা, ১৬৫ কোটি ২৭ লাখ টাকার এফডিআর ও মাদক জব্দ করে র‍্যাব।