• সোমবার, অক্টোবর ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৩ রাত

পুলিশের নির্যাতনে আসামির মৃত্যুর অভিযোগ

  • প্রকাশিত ০৩:৩২ বিকেল সেপ্টেম্বর ৩০, ২০১৯
মৃত্যু
ছবি: প্রতীকী।

পুলিশের দাবি, নির্যাতন নয় হার্টঅ্যাটাকেই মৃত্যু হয়েছে আসামি ফারুক মিয়ার

হবিগঞ্জে পুলিশের নির্যাতনে আসামির মৃত্যুর অভিযোগ উঠেছে। রবিবার রাতে চেক ডিজঅনার মামলার আসামি ফারুক মিয়ার মৃত্যু হয়।তার বাড়ি শহরের মোহনপুর এলাকায়।

নিহতের পরিবারের দাবি, রবিবার রাতে হবিগঞ্জ সদর থানার উপপরিদর্শক (এসআই) সাহিদ মিয়ার নেতৃত্বে একদল পুলিশ শহরের মোহনপুর এলাকায় অভিযান চালিয়ে ফারুক মিয়াকে আটক করে থানায় নিয়ে ব্যাপক নির্যাতন করে। এতে তিনি অসুস্থ হয়ে পড়লে তাকে হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কর্তব্যরত চিকিৎসক ফারুক মিয়াকে মৃত ঘোষণা করেন।

নিহতের ছেলে মাসুক মিয়া জানান, পুলিশ তার বাবাকে আটকের পর থেকেই মারধোর করে থানায় নিয়ে নির্যাতন করে। সে থানায় তার বাবাকে দেখতে গেলেও পুলিশ বাধা প্রদান করে। তিনি অভিযোগ করেন পুলিশের নির্যাতনের কারনেই তার বাবার মৃত্যু হয়েছে।

এই ঘটনায় তীব্র ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে এলাকাবাসীর মাঝে। তারা এই ঘটনায় হাসপাতাল ঘেরাও করে বিক্ষোভ প্রদর্শন করেছেন। খবর পেয়ে হাসপাতালে ছুটে আসে পুলিশ সুপারসহ উর্ধতন কর্মকর্তারা।

এদিকে, হার্টঅ্যাটাকে ফারুক মিয়ার মৃত্যু হয়েছে বলে দাবি করেছে পুলিশ। হবিগঞ্জ সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মাসুক আলী ঢাকা ট্রিবিউনকে বলেন, "ফারুক মিয়াকে কেউ নির্যাতন করেনি। সে স্টোক করার পর তাকে সদর হাসপাতালে নিয়ে গেলে চিকিৎসক মৃত ঘোষণা করেন।"

হবিগঞ্জ সদর হাসপাতালের জরুরী বিভাগের চিকিৎসক মিঠুন রায় জানান, "ফারুক মিয়াকে অসুস্থ অবস্থায় হাসপাতালে নিয়ে আসার পর তার মৃত্যু হয়। তবে ময়না তদন্তের পর বুঝা যাবে মৃত্যুর সঠিক কারন। 

হবিগঞ্জের পুলিশ সুপার মোহাম্মদ উল্ল্যা জানান, "ময়নাতদন্তের পর যদি পুলিশ দোষী সাব্যস্থ হয় তাহলে অবশ্যই পুলিশের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। কাউকে ছাড় দেয়া হবে না।"