• রবিবার, অক্টোবর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১১:০০ রাত

'সবার' সামনে নিজের শরীরে আগুন দেওয়া ছাত্রীর মৃত্যু

  • প্রকাশিত ১২:৫২ দুপুর অক্টোবর ২, ২০১৯
লাশ

চিকিৎসক পার্থ শঙ্কর পাল বলেন, ওই ছাত্রীর শরীর আগুনে ৬৪ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল

রাজশাহীর টিচার্স ট্রেনিং কলেজের সামনে নিজের গায়ে আগুন দেওয়া পর লিজা রহমান (১৮) নামের এক কলেজছাত্রীর মৃত্যু হয়েছে। বুধবার (২ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ৭টার দিকে ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালের বার্ন ইউনিটে তার মৃত্যু হয়।  

ঢামেক হাসপাতালের বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইউনিটের আবাসিক চিকিৎসক পার্থ শঙ্কর পাল ঢাকা ট্রিবিউনকে বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, ওই ছাত্রীর শরীর আগুনে ৬৪ শতাংশ দগ্ধ হয়েছিল।

মৃত লিজা গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জ উপজেলার আবদুল লতিফের মেয়ে। তিনি রাজশাহী সিটি কলেজের দ্বিতীয় বর্ষের শিক্ষার্থী সাখাওয়াত হোসেনের (১৮) স্ত্রী। 

গত ২৮ সেপ্টেম্বর পারিবারিক দ্বন্দ্বের জেরে লিজা রাজশাহীর টিচার্স ট্রেনিং কলেজের সামনে নিজের গায়ে আগুন দেন। তখন তাকে উদ্ধার করে স্থানীয়রা রাজশাহী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি করে। পরে সেখান থেকে লিজাকে ঢামেক হাসপাতালে পাঠানো হয়। 

আতিরিক্ত উপপুলিশ কমিশনার গোলাম রুহুল কুদ্দুস জানান, সকালে স্বামীর সঙ্গে ঝগড়ার পর লিজা শাহ মখদুম থানায় মামলা করতে গিয়েছিলেন। কিন্তু পুলিশ তাকে থানার কাছের ভিকটিম সাপোর্ট সেন্টারে অভিযোগ করার পরামর্শ দেয়। পরে লিজা থানা ত্যাগ করেন এবং নিজের শরীরে আগুন দেন।