• শুক্রবার, নভেম্বর ১৫, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৬ রাত

রুয়েটে ভর্তি পরীক্ষার তারিখ ঘোষণা

  • প্রকাশিত ০৬:১৫ সন্ধ্যা অক্টোবর ২২, ২০১৯
রুয়েট
ছবি: সংগৃহীত

পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন

রাজশাহী প্রকৌশল ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়ে (রুয়েট) ২০১৯-২০ শিক্ষাবর্ষের স্নাতক (সম্মান) প্রথম বর্ষের ভর্তি পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হতে যাচ্ছে আগামী ২৪ অক্টোবর। এ বছর ১ হাজার ২৩৫টি আসনের বিপরীতে দুই গ্রুপে সর্বমোট ৯ হাজার ৬০ জন ভর্তিচ্ছু শিক্ষার্থী পরীক্ষায় অংশ নিচ্ছেন। 

পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে ইতোমধ্যে সব প্রস্তুতি শেষ করেছে বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসন।

মঙ্গলবার (২২ অক্টোবর) দুপুর সাড়ে ১২টার দিকে বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রশাসনিক ভবনে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব তথ্য জানান রুয়েট উপাচার্য অধ্যাপক ড. রফিকুল ইসলাম সেখ।

উপাচার্য বলেন, ‘‘ভর্তি পরীক্ষা সুষ্ঠুভাবে সম্পন্ন করতে সব ধরনের প্রস্তুতি সম্পন্ন হয়েছে। পরীক্ষাকে কেন্দ্র করে সব ধরনের জালিয়াতি রোধে ব্যবস্থা নেওয়া হয়েছে।’’

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্যে ভর্তি পরীক্ষা কমিটির সভাপতি অধ্যাপক ড. মোশাররফ হোসেন বলেন, দু’টি গ্রুপের (ক ও খ) অধীনে ১৪টি বিভাগে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। এরমধ্যে সকাল ৯টা থেকে বেলা ১১টা পর্যন্ত  ‘ক’ গ্রুপের এবং ‘খ’ গ্রুপের অধীনে সকাল ৯টা থেকে দুপুর ১২টা ১০ পর্যন্ত পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে। আগামী ৪ নভেম্বর ভর্তি পরীক্ষার ফল প্রকাশ করা হবে বলেও জানান তিনি।

তিনি আরও বলেন, পরীক্ষা হলে ভর্তিচ্ছুকে উচ্চ মাধ্যমিকের মূল রেজিস্ট্রেশন কার্ড ও এর ফটোকপি, ভর্তি পরীক্ষার প্রবেশপত্র (দুই কপি) সঙ্গে আনতে হবে। সংরক্ষিত আসনের প্রার্থীদের ভর্তি পরীক্ষার দিন হল পরিদর্শকের নিকট উপজাতি/ ক্ষুদ্র জাতিসত্ত্বা/ ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর গোত্রের মোড়ল/হেডম্যান/গোত্রপ্রধান কর্তৃক প্রদত্ত সনদের মূলকপিসহ সত্যায়িত ফটোকপি সঙ্গে আনতে হবে। অন্যথায় ভর্তির প্রার্থীতা বাতিল বলে গণ্য হবে। পরীক্ষা চলাকালীন ক্যালকুলেটর ছাড়া কোনো ধরনের ইলেকট্রনিক ডিভাইস বহন করা যাবে না।

সংবাদ সম্মেলনে এসময় অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, রুয়েটের ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার অধ্যাপক ড. সেলিম হোসেন, ছাত্র কল্যাণ দফতরের পরিচালক অধ্যাপক ড. রবিউল আওয়াল, উপ-পরিচালক মামুনুর রশীদ ও আবু সাঈদ, কেন্দ্রীয় ভান্ডারের ইনচার্জ শ্যাম দত্ত, পরিকল্পনা ও উন্নয়ন দপ্তরের সহকারী প্রকৌশলী হারুন অর রশীদ, জনসংযোগ কর্মকর্তা (ভারপ্রাপ্ত) আ.ফ.ম. মাহমুদুর রহমান প্রমুখ।