• সোমবার, সেপ্টেম্বর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৪ রাত

শিক্ষামন্ত্রী: এবারের বাজেটে শিক্ষাখাতে বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে

  • প্রকাশিত ০৩:২৮ বিকেল জুন ১৪, ২০১৯
দীপু মনি
শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। ফাইল ছবি

তিনি আরও বলেন, ১০ বছরের আগের বাজেটের চেয়ে এবারের বাজেট ৭ গুণ বেড়েছে

এবারের বাজেটে শিক্ষাখাতে অন্যবারের তুলনায় বেশি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে বলে মন্তব্য করেছেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি। আমরা শিক্ষা মন্ত্রণালয় যা চেয়েছি সে অনুযায়ী বরাদ্দ পেয়েছি। শিক্ষা সম্পর্কিত মানব সম্পদ উন্নয়নে আমরা এ বরাদ্দ ব্যয় করবো।

শুক্রবার (১৪ জুন) চাঁদপুর সার্কিট হাউজে সাংবাদিকদের প্রশ্নের জবাবে শিক্ষামন্ত্রী এ কথা বলেন।

তিনি বলেন, অর্থ পেলেই হয় না, তাকে কাজে লাগাতে হবে। শিক্ষাখাতে যে বাজেট দেয়া হয়েছে তাতে আমরা কাক্সিক্ষত সাফল্য অর্জন করবো, ইনশাল্লাহ। বিশ্বের প্রতিটি দেশই শিক্ষখাতকে গুরুত্ব দেয়। কোন কোন দেশ শিক্ষাখাতে সর্বোচ্চ ১৫ থেকে ২০ ভাগ বরাদ্দ দেয়। আমাদের দেশে ১৭ ভাগে তা রাখা হয়েছে।

উল্লেখ্য, ২০১৯-২০ অর্থবছরের প্রস্তাবিত বাজেটে ১৫.২ শতাংশ অর্থ বরাদ্দ রাখা হয়েছে যা খাতওয়ারি বরাদ্দকৃত অর্থের দিক থেকে দ্বিতীয় অবস্থানে আছে। সর্বোচ্চ বরাদ্দ রাখা হয়েছে জনপ্রশাসন খাতে- ১৮.৫ শতাংশ। 

পাবলিক পরীক্ষাগুলোতে জিপিএ-৫ বাদ দিয়ে জিপিএ-৪ গ্রেড পর্যন্ত রাখা সম্পর্কে মন্ত্রী বলেন, বিশ্ব এবং আমাদের দেশের উচ্চ শিক্ষায় ৪ গ্রেডের মধ্যেই শিক্ষার মান সীমাবদ্ধ রাখা হয়। সেই ক্ষেত্রে আমাদের গ্রেড-৫ যেটি আছে সেটিকে কমিয়ে এনে সামঞ্জস্য করার লক্ষ্যেই আমরাও ৫ গ্রেডকে না রেখে ৪ গ্রেড করার চেষ্টা করছি। আমরা বিষয়টি নিয়ে আলোচনা করছি। এ বিষয়ে এখনো কোন চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত আমরা নেইনি।

তিনি আরও বলেন, ১০ বছরের আগের বাজেটের চেয়ে এবারের বাজেট ৭ গুণ বেড়েছে।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন, চাঁদপুরের জেলা প্রশাসক মো. মাজেদুর রহমান খান, পুলিশ সুপার জিহাদুল কবির, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি নাছির উদ্দিন আহমেদ, সাধারণ সম্পাদক আবু নঈম পাটওয়ারী দুলাল, সাংগঠনিক সম্পাদক আলহাজ্ব তাফাজ্জল হোসেন এসডু পাটওয়ারী প্রমুখ।