• সোমবার, নভেম্বর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৩৪ দুপুর

পরিকল্পনামন্ত্রী: সবার জন্য পেনশন চালু করতে চায় সরকার

  • প্রকাশিত ১০:২৭ রাত নভেম্বর ৬, ২০১৯
পরিকল্পনামন্ত্রী
পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান মেহেদী হাসান/ঢাকা ট্রিবিউন

বুধবার রাজধানীর একটি হোটেলে “ইন্ট্রোডিউসিং এ ইউনিভার্সাল পেনশন স্কিম ইন বাংলাদেশ: ইন সার্চ অব এ ফ্রেমওয়ার্ক” শীর্ষক এক সংলাপে তিনি এসব কথা বলেন

দেশের সরকারি ও বেসরকারি পর্যায়ের কর্মীদের অর্থনৈতিক নিরাপত্তার বিষয়টি নিয়ে সরকার কাজ করছে বলে জানিয়েছেন পরিকল্পনামন্ত্রী এম এ মান্নান। তিনি বলেন, “সরকার সবার জন্য পেনশন ব্যবস্থা চালু করতে চায়। এজন্য কাজ শুরু হয়েছে। সর্বজনীন পেনশন চালুর ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত অর্থ সংস্থানের কথাও ভাবা হচ্ছে।”

বুধবার (৬ নভেম্বর) রাজধানীর একটি হোটেলে “ইন্ট্রোডিউসিং এ ইউনিভার্সাল পেনশন স্কিম ইন বাংলাদেশ: ইন সার্চ অব এ ফ্রেমওয়ার্ক” শীর্ষক এক সংলাপে তিনি এসব কথা বলেন। সংলাপের আয়োজন করে সেন্টার ফর পলিসি ডায়ালগ (সিপিডি) ও অক্সফাম ইন বাংলাদেশ। 

সংলাপে বাংলাদেশের নাগরিকদের জন্য একটি “সর্বজনীন পেনশন স্কিম” চালু করার সুযোগ, প্রয়োজনীয় নীতি ও প্রাতিষ্ঠানিক সংস্কার এবং সংশ্লিষ্ট চ্যালেঞ্জসমূহ নিয়ে আলোচনা হয়। 

এম এ মান্নান বলেন, “আমার জানা মতে, অর্থমন্ত্রণালয়ের ভেতরে ছোট একটি সেল আছে, যারা সবার জন্য পেনশন চালুর বিষয়ে প্রাথমিক কাজ শুরু করেছে।”

সর্বজনীন পেনশন কীভাবে বাস্তবায়ন করা যায়, অন্য দেশগুলো কীভাবে এটা চালাচ্ছে, অর্থের সংস্থান কীভাবে করা যায়, আয়োজকদের কাছে এবিষয়ে পরামর্শ চান পরিকল্পনামন্ত্রী। এসময় তিনি সর্বজনীন পেনশন চালুর ক্ষেত্রে ব্যক্তিগত অর্থ সংস্থানের প্রস্তাবও করেন। 

পরিকল্পনামন্ত্রী বলেন, “সবাই এখানে অংশ নিতে পারবে না। আমাদের এখনও ১১-১২ শতাংশ মানুষ আছে, যাদের আমরা হতদরিদ্র বলি। যাদের কোনও নিট আয় নেই। আমাদের রাজনৈতিক শক্তির প্রথম টার্গেট ওই নিচের ১১-১২ ভাগ মানুষকে টেনে ওপরে আনা। তারা কন্ট্রিবিউট করতে পারবে না, তাই আসতে পারবে না, সেই ধরনের চিন্তায় আমরা যাবো না।” 

সংলাপে অন্যান্যর মধ্যে উপস্থিত ছিলেন, বিশ্ব ব্যাংকের সাবেক লিড ইকোনমিস্ট ড. জাহিদ হোসেন, সিপিডির বিশেষ ফেলো দেবপ্রিয় ভট্টাচার্য ও অধ্যাপক মুস্তাফিজুর রহমান প্রমুখ।