• বৃহস্পতিবার, নভেম্বর ১৪, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৪:২৫ বিকেল

মনে পড়ে যায় ভালোবাসা আর শূন্যতায়

  • প্রকাশিত ০১:৫২ দুপুর অক্টোবর ১৮, ২০১৯
আইয়ুব বাচ্চু
ব্যান্ডমেটদের সঙ্গে আইয়ুব বাচ্চু ছবি সৌজন্যে: ইমতিয়াজ আলম বেগ

আইয়ুব বাচ্চু গেয়েছিলেন, ‘মনে আছে? নাকি নাই?’ তিনি নিশ্চয়ই আজকের দিনটা দেখছেন, ভক্তদের মনের গভীরে যে ভালোবাসা আজও রয়ে গেছে, তার একমাত্র মাধ্যম গান

তাকে আর কীভাবে স্মরণ করা যায়, গান ছাড়া? গিটার ছাড়া?

বছর ঘুরে আবার এলো অক্টোবর। এই এরকম এক সকালে সবাই যখন জ্যাম, ভিড় ঠেলে সকাল সকাল অফিস এসে পৌছেছে, তখনই খবর পাওয়া গেল সবাইকে ছেড়ে আকাশে উড়াল দিয়েছেন গিটারের জাদুকর আইয়ুব বাচ্চু। মন খারাপ করা, শোকস্তব্ধ দিনটি আবার ফিরে এসেছে।

আজও সারাদিন মন খারাপ করে অনেকেই চুপচাপ বসে থাকবেন। জীবনের অনেক আয়োজন ডাকলেও আজ আর আসবেন না এবি। 

গত এক বছরে আইয়ুব বাচ্চুর শূন্যতা কতটা অনুভূত হয়েছে তা জানেন তার অসংখ্য ভক্তরা। চিরচেনা গলায় সেই চিরচেনা গান নেই, স্টেজ মাতিয়ে রাখা গিটারের জাদু নেই, আছে শুধু শূন্যতা। 

আইয়ুব বাচ্চু গেয়েছিলেন, ‘মনে আছে? নাকি নাই?’ তিনি নিশ্চয়ই আজকের দিনটা দেখছেন, ভক্তদের মনের গভীরে যে ভালোবাসা আজও রয়ে গেছে, তার একমাত্র মাধ্যম গান। গানে গানে ভালোবাসা আর শ্রদ্ধা জানাই আমাদের শৈশব কৈশোরের রকস্টার আইয়ুব বাচ্চুর প্রতি।

আর এইদিনেই বাংলার কোটি কোটি রকপাগল জনতা নিশ্চয়ই চাইবে আইয়ুব বাচ্চুর এল.আর.বি আবারও মঞ্চে থাকুক আগের মত করে।

বাংলাদেশে ব্যান্ডের অনেক ভাঙা গড়াই গিয়েছে, সময়ের ব্যবধানে কোন ব্যান্ড হয়তো জোড়া লেগেছে, কোনটা চিরতরে হারিয়ে গেছে।  কিন্তু আইয়ুব বাচ্চু কখনোই ব্যান্ডকে ভাঙতে দেননি। শক্ত হাতে হাল ধরেছিলেন। 

আমরা এল.আর.বি ভক্তরা চাই আইয়ুব বাচ্চুর স্মৃতি ধরে রাখতেই এল.আর.বি আগের লাইন আপে ফিরে আসুক। আইয়ুব বাচ্চুর জন্য এর চেয়ে ভালো নিবেদন আর কি হতে পারে!