• শুক্রবার, সেপ্টেম্বর ২০, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৯:১৪ রাত

ঘরোয়া উপায়েই মিলবে বলিরেখার সমাধান!

  • প্রকাশিত ০৩:৪২ বিকেল আগস্ট ১৬, ২০১৯
বলিরেখা
ছবি: সংগৃহীত

রূপ বিশেষজ্ঞদের মতে, যেকোনও অ্যান্টি এজিং ক্রিমের তুলনায় নারকেল তেলের ভূমিকা ত্বকের পক্ষে ভালো। তবে খুব তৈলাক্ত ত্বক হলে সরাসরি নারকেল তেল না মেখে তারসঙ্গে কিছু সহজলভ্য ঘরোয়া উপাদান মিশিয়ে ব্যবহার করতে হবে

বয়স বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ত্বকে এর ছাপ পড়বেই। তবে সারাবছর যত্ন নিলে সেই ছাপকে ঠেকিয়ে রাখা অনেকটা সহজ হয়। ঘরোয়া যত্ন ও ত্বক বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ এক্ষেত্রে অনেকবেশি কার্যকর।

রূপ বিশেষজ্ঞদের মতে, যেকোনও অ্যান্টি এজিং ক্রিমের তুলনায় নারকেল তেলের ভূমিকা ত্বকের পক্ষে ভালো। তবে খুব তৈলাক্ত ত্বক হলে সরাসরি নারকেল তেল না মেখে তার সঙ্গে কিছু সহজলভ্য ঘরোয়া উপাদান মিশিয়ে ব্যবহার করতে হবে। শুধু বলিরেখা নয়, ত্বকের অন্যান্য সমস্যা রুখতেও এই নারকেল তেল খুবই কার্যকর।

অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার: এক টেবিল চামচ অ্যাপেল সাইডার ভিনিগার, চার-পাঁচ ফোঁটা নারকেল তেল ও এক চামচ পানি মিশিয়ে নিন। এই মিশ্রণ সারামুখে লাগিয়ে শুকোতে দিন। এবার সারা মুখে খানিকটা নারকেল তেল আলাদা করে মাসাজ করুন। রাতে রেখে সকালে উঠে ঠাণ্ডা পানি দিয়ে মুখ ধুয়ে নিন। যেকোনও অ্যান্টি এজিং ক্রিমের তুলনায় ত্বকের বয়স ঠেকাতে বেশি কাজে আসবে এই মিশ্রণ।

ছানা: লেবু দিয়ে দুধ কাটিয়ে ছানা বানিয়ে নিন। এবার পানি ঝরানো ছানার সঙ্গে দুই টেবিল চামচ নারকেল তেল মিশিয়ে নিন। ছানা ও তেলের এই মিশ্রণ মুখে ভাল করে মাসাজ করে মিনিট পনেরো পর ধুয়ে নিন মুখ। সপ্তাহে তিনদিন এই মিশ্রণ মুখে মাখতে পারলে বয়সের কারণে নিষ্প্রভ ত্বকে জেল্লা আসবে সহজেই।

হলুদ: ত্বকের যত্নে হলুদ খুবই উপকারী। হলুদের অ্যান্টিঅক্সিড্যান্ট কোলাজেন উৎপন্ন করে ত্বককে টানটান রাখে। এক চিমটি হলুদ ও কয়েকফোঁটা নারকেল তেল মিশিয়ে মিশ্রণটি মুখে লাগিয়ে কিছুক্ষণ রেখে ধুয়ে ফেললে ত্বক নরম তো হবেই সেইসঙ্গে বলিরেখাও দীর্ঘদিন ঠেকিয়ে রাখা যাবে।