• শুক্রবার, অক্টোবর ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৩:৪৬ বিকেল

মাছের চামড়ায় তৈরি হচ্ছে জুতা

  • প্রকাশিত ১২:০৬ দুপুর জুলাই ২৪, ২০১৮
spc-african-start-up-kenya-fish-leather-00010004-large-169-1532412051432.jpg
মাছের চামড়া ব্যবহারের উদ্যোক্তা নিউটন।ছবি: সংগৃহীত

কেনিয়ায় মাছের চামড়া ব্যবহার করে তৈরি হচ্ছে ফ্যাশন পণ্য

পশুর চমড়া দিয়ে তৈরি হয় নানান ফ্যাশন পণ্য। পৃথিবী জুড়ে মানুষ ব্যবহার করে আসছে পশুর চামড়ার তৈরি ব্যবহারিক পন্য। তবে সেই ব্যবহারিক পন্য যদি মাছের চামড়া দিয়ে তৈরি হয় তাহলে অবাক হওয়ার কিছু নেই। 

কেনিয়ার তৃতীয় বৃহত্তম শহর ও মাছ রপ্তানিতে অন্যতম কিসুমুতে মাছের চামড়া ব্যবহার করে তৈরি হচ্ছে ফ্যাশন পণ্য। সমুদ্র তীরবর্তী শহর কিসুমু অনেকদিন ধরে বিদেশে মাছ রপ্তানি করে আসছে। তাই এবার মাছের বর্জ্যকে কার্যকরী ব্যবহার উপযোগী করতে নতুন অবিনব উপায় বের করেছে তরুণ ব্যবসায়ী নিউটন। পশুর চামড়ার পরিবর্তে মাছের চামড়া দিয়ে মানিব্যাগ, জুতা এবং বিভিন্ন জিনিস তৈরি করে বিক্রি করছে নিউটনের প্রতিষ্ঠান।  

২৯ বছর বয়সী নিউটন মাছের চামড়াকে বেছে নিয়েছেন পন্যের তৈরির কাঁচামাল হিসেবে। নিউটনের মতে মাছের চামড়া পচনশীল এতে পরিবেশ ক্ষতিগ্রস্ত হয়। তাই সেই পচনশীল বস্তুকে ব্যবহার করে পুনরায় পন্য তৈরিতে ব্যবহার করা সম্ভব। মাচের চামড়া দিয়ে পণ্য তৈরি করে কর্মসংস্থানের পাশাপাশি তা সাশ্রয়ী মূল্যে স্থানীয়দের কাছে বিক্রি করাও যাচ্ছে।    

কিসুমুতে ৩টি ট্যানারি রয়েছে। কিন্তু মাছের চামড়া প্রক্রিয়াজাতকরণে দক্ষ শুধুমাত্র নিউটনের কারখানা। প্রতিদিন নিউটনের কারখানায় দেশটির বিভিন্ন রেস্তোরা ও কারখানা থেকে মাছের বর্জ্য আসে। মাছের চামড়া থেকে আঁশ ছারিয়ে ভেষজ উপায়ে প্রক্রিয়াজাত করা হয়।  

বর্তমানে নিউটনের কারখানায় ১২ জন কর্মচারী সম্পূর্ণ পরিবেশবান্ধব উপায়ে পণ্য উৎপাদন করছে। নিউটনের ইচ্ছা মাছের ট্যানারি শিল্প বিকাশ ও স্থানীয় তরুণদের ট্যানারি সম্পর্কে আগ্রহী করতে প্রশিক্ষণ স্কুল স্থাপন করা।

সূত্রঃ আল জাজিরা