• বুধবার, জুলাই ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৭:৩৬ রাত

জাপানের প্রথম নারী ‘ফাইটার জেট পাইলট’

  • প্রকাশিত ০৭:০০ রাত আগস্ট ২৪, ২০১৮
ফাইটার পাইলট
জাপানের প্রথম নারী ফাইটার জেট পাইলট। ছবি: এএফপি

শুক্রবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফাইটার পাইলট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করছেন মাতসুমিশা।

জাপান এখনও নারীদের পেশার বিষয়ে বেশ রক্ষণশীল। এবার সেই দেশেই প্রথমবারের মতো ফাইটার জেট চালাবেন ২৬ বছর বয়সী নারী পাইলট মিসা মাতসুমিশা। একইসঙ্গে জাপানের প্রথম নারী ফাইটার জেট পাইলট হিসেবে ইতিহাসের খাতায়ও নাম লেখালেন তিনি।

সংবাদমাধ্যম বিবিসি জানিয়েছে, এতোদিন ফাইটার পাইলট হিসেবে নারীদের নিয়োগ দেওয়া হত না জাপানে। ২০১৫ সালে এ বিষয়ক নিষেধাজ্ঞাটি উঠে যাওয়ার আগ পর্যন্ত মালবাহী বিমানের পাইলটের দায়িত্ব পালন করতেন মাতসুমিশা।

জাপান মিলিটারি’র ঘোষণা অনুযায়ী, শুক্রবার থেকে আনুষ্ঠানিকভাবে ফাইটার পাইলট হিসেবে দায়িত্ব গ্রহণ করবেন মাতসুমিশা। তিনি ইতোমধ্যেই ফাইটার জেট এফ-১৫এস চালানোর প্রশিক্ষণ নিয়েছেন।

এদিকে উচ্ছ্বসিত মাতসুমশিা জানিয়েছেন, “প্রথম নারী পাইটার বিমান চালনকারী হিসেবে আমি অন্যদেরকেও এ বিষয়ে আগ্রহী করে তুলব। আমি আমার দায়িত্ব পালনের জন্য কঠোর পরিশ্রম করবো। শুধু নিজের জন্য নয়, অন্য আগ্রহী নারীদের জন্যও।”

তিনি আরও বলেন, “ছোটবেলায় প্রাথমিক বিদ্যালয়ে পড়ার সময় ‘টপ গান’ ছবিটি দেখার পর থেকেই আমার ফাইটার জেট পাইলট বিষয়ে আগ্রহ সৃষ্টি হয়।” সে আগ্রহ থেকেই পেশা হিসেবে বিমানচালনাকে বেছে নেন মাতসুমিশা। প্রশিক্ষণ নেন জাপানের ন্যাশনাল ডিফেন্স অ্যাকাডেমি থেকে।

উল্লেখ্য, জাপানে ১৯৯৩ সাল থেকে বিমানচালনার জন্য নারীদের নিয়োগ নেওয়া শুরু করলেও, ফাইটার জেট পাইলট হিসেবে নারীদের নিয়োগ দিত না দেশটির সামরিক বাহিনী। পরবর্তীতে ২০১৫ সালের শেষ দিকে এসে এই নিয়োগ বিষয়ক নিষেধাজ্ঞাটি তুলে নেয় জাপান এয়ার ফোর্স।

বর্তমানে আরও তিনজন নারী বিমানচালক ফাইটার পাইলট হওয়ার প্রশিক্ষণ নিচ্ছেন বলে জানিয়েছে বিবিসি। এদিকে দেশের প্রথম নারী ফাইটার জেট পাইলট বিষয়ে এক টুইট বার্তায় জাপানের এয়ার সেলফ ডিফেন্স ফোর্স জানিয়েছে, “জন্ম নিয়েছে এয়ার সেলফ ডিফেন্স ফোর্সের প্রথম নারী পাইলট।”