• শুক্রবার, জুলাই ১৯, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৪৪ রাত

হাইহিলে কোকেন; মার্কিন নারীর জেল

  • প্রকাশিত ০৭:৫১ রাত সেপ্টেম্বর ৭, ২০১৮
হাইহিলে কোকেন
হাইহিলে কোকেন। ছবি: অস্ট্রেলিয়ান বর্ডার ফোর্সের সৌজন্যে।

ইন্টারনেটে পরিচয় হওয়া এক ব্যক্তি তাকে দিয়ে কৌশলে একাজ করিয়ে নিয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

হাইহিল জুতো ও লাগেজের কাপড়ের ভেতর কোকেন ভরে অস্ট্রেলিয়ায় চোরাচালানের অভিযোগে  সাড়ে সাত বছরের জেল হয়েছে এক নারীর।

অস্ট্রেলিয়ার নিউ সাউথ ওয়েলস ডিস্ট্রিক্ট কোর্ট বৃহস্পতিবার ওই নারীকে সর্বোচ্চ সাড়ে ৭ বছরের কারাদণ্ড দেয়। 

গত বছর ৫১ বছর বয়সী মার্কিন নাগরিক ডেনিস মারিয়ে উডড্রামের কাছে কোকেন পাওয়ার পর  সিডনি বিমানবন্দরে তাকে গ্রেফতার করা হয়। ইন্টারনেটে পরিচয় হওয়া এক ব্যক্তি তাকে দিয়ে কৌশলে একাজ করিয়ে নিয়েছে বলে দাবি করেন তিনি।

জানুয়ারিতে এ চোরাচালানের ঘটনার দোষ স্বীকার করলেও, উডড্রাম জানান তিনি ঘটনার শিকার হয়েছেন। তবে উডড্রাম সব জেনেশুনেই একাজ করেছেন এমন রায় দিয়ে তাকে দোষী সাব্যস্ত করেছেন নিউ সাউথ ওয়েলস আদালত।

মামলা চলাকালীন উডড্রামের আইনজীবী রেবেকা নেইল জানান, তার মক্কেল খুবই ধার্মিক এবং নিভৃতবাসে থাকা একজন নারী। অনলাইনে হেনড্রিক কর্নেলিয়াস নামের এক ব্যক্তি তার সঙ্গে প্রেমের অভিনয় করেন এবং তার মক্কেলের সরল বিশ্বাসের সুযোগ নিয়ে কৌশলে একাজ করেছেন।

কর্নেলিয়াসের সঙ্গে সরাসরি কখনও দেখা না হলেও, তার সঙ্গে জড়িত আরেক ব্যক্তি উডড্রামকে কিছু কাপড় দিয়েছিল। আর হাইহিল জুতোটি উডড্রাম পেয়েছিলেন তার মায়ের জন্য উপহার হিসেবে। অস্ট্রেলিয়ার সীমান্ত সুরক্ষা বাহিনীর কর্মকর্তাদেরকেও এমন তথ্যই দিয়েছিলেন উডড্রাম।

আদালতেও উডড্রামের পক্ষে এই যুক্তি উপস্থাপন করা হয়। তবে আদালতের বিচারক উডড্রামের যুক্তিতে সন্তুষ্ট হননি এবং উডড্রাম নিজ কাজের জন্য তেমন অনুতপ্ত ছিলেন না বলেও জানান বিচারক।