• শনিবার, নভেম্বর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩২ রাত

বন্যায় অস্ট্রেলিয়ার রাস্তায় কুমির, নিয়ন্ত্রণে সেনা মোতায়েন

  • প্রকাশিত ০৬:২৯ সন্ধ্যা ফেব্রুয়ারি ৪, ২০১৯
অস্ট্রেলিয়া
অস্ট্রেলিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে শতাব্দীর ভয়াবহ বন্যায় ভেসে গেছে দেশটির কুইন্সল্যান্ড অঙ্গরাজ্যের টাউন্সভিল শহরের রাস্তাঘাট। ছবি: সংগৃহীত

বন্যা পরিস্থিতি এরকম চলতে থাকলে শহরটির ২০ হাজার বাড়িঘর পানিতে ডুবে যাবে বলে  আশঙ্কা  আবহাওয়াবিদদের

অস্ট্রেলিয়ার উত্তর-পূর্বাঞ্চলে শতাব্দীর ভয়াবহ বন্যায় ভেসে গেছে দেশটির কুইন্সল্যান্ড অঙ্গরাজ্যের টাউন্সভিল শহরের রাস্তাঘাট। ভয়াবহ এই প্রাকৃতিক দুর্যোগে আকস্মিক বন্যা, ভূমিধস ও বিদ্যুৎ বিচ্ছিন্নতার কারণে কুমির ও অন্যান্য সরীসৃপ প্রাণী রাস্তায় ভেসে আসায় পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনতে সেনা মোতায়েন করা হয়েছে বলে এক প্রতিবেদনে জানিয়েছে সিএনএন।

প্রতিবেদন অনুযায়ী, টাউন্সভিলে বেশ কয়েকটি লোনাপানির কুমির দেখা যাওয়া ছাড়াও এলাকাটির বাড়িঘর, স্কুল ও বিমানবন্দর পানিতে নিমজ্জিত হয়েছে এবং হাজার হাজার লোক বাড়িঘর ছেড়ে নিরাপদ স্থানে চলে গেছে।

সোমবার অস্ট্রেলিয়ান ডিফেন্স ফোর্স উপদ্রুত এলাকায় বালুর ব্যাগ সরবরাহ করেছে, উভচর মালবাহী যানবাহন মোতায়েন করেছে ও আটকা পড়া বাসিন্দাদের ছাদ থেকে হেলিকপ্টারে করে উদ্ধার করেছে। টাউন্সভিলের প্রায় ৪শ বাসিন্দা নিকটস্থ লাভারাক সেনা ব্যারাকে আশ্রয় নিয়েছে। এছাড়াও উদ্ধার তৎপরতা চালানো জরুরি সংস্থাগুলো দুর্যোগ মোকাবেলা করতে কাজ করে যাচ্ছে বলে জানিয়েছে বার্তাসংস্থা এএফপি।

দেশটির আবহাওয়া ব্যুরো জানায়, টাউন্সভিল থেকে সামান্য উত্তরে ইনগাম শহরে সোমবার সকালে কয়েকঘণ্টার মধ্যেই ১০ সেন্টিমিটার বৃষ্টিপাত হয়েছে। উপকূলবর্তী এলাকায় বাতাসের গতিবেগ ঘন্টায় ১শ কিলোমিটার বেগে বইতে পারে বলে ধারণা করা হচ্ছে। এরকম চলতে থাকলে ২০ হাজার বাড়িঘর পানিতে নিমজ্জিত হয়ে যেতে পারে আশঙ্কাও করছেন আবহাওয়াবিদরা।

কুইন্সল্যান্ডের রাজ্যপ্রধান আনাস্তাসিয়া  প্যারাজজুক বলেন, ‘২০ বছরের মধ্যে না, ১শ’ বছরে এ ধরনের প্রাকৃতিক দুর্যোগ দেখা দেয়।’