• সোমবার, জুন ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৮:০৯ রাত

দুর্নীতির নতুন মামলায় অভিযুক্ত মালয়েশিয়ার সাবেক ফার্স্ট লেডি

  • প্রকাশিত ০৭:৪৪ রাত এপ্রিল ১০, ২০১৯
নাজিব রাজাক ও তার স্ত্রী রোজমাহ মনসুর। ফাইল ছবি
নাজিব রাজাক ও তার স্ত্রী রোজমাহ মনসুর। ফাইল ছবি

স্বামী নাজিব রাজাক ক্ষমতায় থাকাকালে বিলাসবহুল জীবনযাপনের জন্য চরম সমালোচিত ছিলেন তিনি।

মালয়েশিয়ার সাবেক প্রধানমন্ত্রী নাজিব রাজাকের স্ত্রী রোজমাহ মনসুর সৌর বিষয়ক চুক্তি নিয়ে নতুন দুর্নীতি মামলায় অভিযুক্ত হয়েছেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয় থেকে চুক্তি সুরক্ষিত করতে সহায়তা করার জন্য জেপাক হোল্ডিংয়ের ব্যবস্থাপকের কাছ থেকে ৫ মিলিয়ন রিঙ্গিত (১.২২ মিলিয়ন ডলার) ঘুষ গ্রহণের দায়ে অভিযুক্ত করা হয় সাবেক ফার্স্ট লেডি মনসুরকে। এছাড়া তার বিরুদ্ধে দুর্নীতির মামলায় বিপুল পরিমাণে অবৈধ আয় ও কর ফাঁকির অভিযোগ আনা হয়েছে।

খোলা দরপত্র (ওপেন টেন্ডার) ছাড়াই বোর্নিওর পূর্ব সারওয়াক প্রদেশের ৩৬৯টি স্কুলে সৌর প্যানেল সরবরাহ ও স্থাপনের জন্য জেপাক হোল্ডিংয়ের সঙ্গে ১.২৫ বিলিয়ন রিঙ্গিত অর্থের চুক্তি স্বাক্ষর করে শিক্ষা মন্ত্রণালয়।

মালয়েশিয়ার ইতিহাসে এই প্রথম কোনো প্রধানমন্ত্রীর স্ত্রীর বিরুদ্ধে দুর্নীতির অভিযোগ আনা হয়েছে। স্বামী নাজিব রাজাক ক্ষমতায় থাকাকালে বিলাসবহুল জীবনযাপনের জন্য চরম সমালোচিত ছিলেন রোজমাহ।

২০১৮ সালের মে মাসে নির্বাচনে বিজয়ী মাহাথির মোহাম্মদ প্রধানমন্ত্রীর দায়িত্ব গ্রহণের পরই মালয়েশিয়ার রাষ্ট্রীয় অর্থ তহবিল ওয়ানএমডিবি (ওয়ান মালয়েশিয়া ডেভেলপমেন্ট বারহাদ) থেকে বড় অংকের অর্থ আত্মসাতের অভিযোগে নাজিব ও তার স্ত্রীর বিরুদ্ধে ব্যাপক পরিসরে তদন্ত শুরু হয়।

দুর্নীতি মামলায় মালয়েশিয়ার নাজিব রাজাক ও বেশ কয়েকজন উচ্চ পদস্থ সাবেক সরকারি কর্মকর্তা ইতিমধ্যেই অভিযুক্ত হয়েছেন।

নাজিব অভিযোগ করেন, রাজনৈতিক প্রতিহিংসার বশবর্তী হয়ে নতুন সরকার তাকে অভিযুক্ত করেছে। তবে প্রধানমন্ত্রী মাহাথির মোহাম্মাদ বলেছেন, আদালতের মামলাগুলো আইনের শাসনের ওপর ভিত্তি করে দায়ের করা হয়েছে এবং অভিযুক্তদের ন্যায্য বিচার দেয়া হবে।