• শনিবার, নভেম্বর ১৬, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩২ রাত

কাশ্মীর ইস্যুতে জাতিসংঘে জরুরি বৈঠক দাবি পাকিস্তানের

  • প্রকাশিত ০৮:৫১ রাত আগস্ট ১৪, ২০১৯
কাশ্মীর
ছবি: এএফপি

বর্তমানে নিরাপত্তা পরিষদে সভাপতির দায়িত্ব পালন করা পোল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যাসেক ক্যাপটোউইজ জানান, বিষয়টি নিয়ে সদস্য দেশগুলোর মধ্যে আলোচনা হবে

জাতিসংঘ নিরাপত্তা পরিষদের জরুরি বৈঠক আহ্বান জানিয়েছে পাকিস্তান।

মঙ্গলবার (১৩ আগস্ট) নিরাপত্তা পরিষদে কোরায়েশির পাঠানো একটি চিঠি অ্যাসোসিয়েটেড প্রেস পেয়েছে। এতে তিনি ভারতকে ‘বর্ণবাদী মতাদর্শ’ বাস্তবায়নের জন্য অভিযুক্ত করেছেন। যে মতাদর্শের লক্ষ্য দেশটির কাশ্মীর অংশকে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ থেকে হিন্দু সংখ্যাগরিষ্ঠ অঞ্চলে পরিণত করা।

এতে আরও বলা হয়, ভারত বিতর্কিত কাশ্মীরে নিজেদের অংশের স্বায়ত্তশাসন তুলে নেওয়ার যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা আন্তর্জাতিক শান্তির প্রতি এক ‘আসন্ন হুমকি’ ও এরফলে মুসলিম সংখ্যাগরিষ্ঠ অঞ্চলটিতে জাতিগত নিধন ও গণহত্যা হতে পারে।

পাকিস্তানের পররাষ্ট্রমন্ত্রী শাহ মাহমুদ কোরায়েশি ভারতের হিন্দু জাতীয়তাবাদী সরকারের ‘সাম্প্রতিক আগ্রাসী কার্যক্রমের’ নিন্দা জানিয়ে বলেন, “তারা ইচ্ছাকৃতভাবে জম্মু ও কাশ্মীরের আন্তর্জাতিকভাবে স্বীকৃত বিতর্কিত মর্যাদা লঙ্ঘন করছে।”

কোরায়েশি সতর্ক করে দেন যে এমন কোনো পদক্ষেপ কাশ্মীরিদের মাঝে কঠোর প্রতিরোধের সৃষ্টি করবে এবং ভারতীয় দখলদার বাহিনীর ব্যাপক দমন অভিযানে জাতিগত নিধন ও গণহত্যা দেখা দেবে।

বর্তমানে নিরাপত্তা পরিষদের সভাপতির দায়িত্ব পালন করা পোল্যান্ডের পররাষ্ট্রমন্ত্রী জ্যাসেক ক্যাপটোউইজ জানান, চিঠিটি নিয়ে সদস্য দেশগুলো আলোচনা করবে।

উল্লেখ্য, গত ৫ আগস্ট ভারত সরকার কাশ্মীরের বিশেষ সাংবিধানিক মর্যাদা তুলে নেয়ার ঘোষণা দেয় এবং একে রাজ্য থেকে অবনমন করে অঞ্চলে পরিণত করে। এ পদক্ষেপের বিরুদ্ধে সহিংস প্রতিক্রিয়া রোধে কাশ্মীরে টানা কারফিউ জারি ও যোগাযোগ ব্যবস্থা বন্ধ করে রেখেছে ভারত। অঞ্চলটিতে বুধবার দশম দিনের মতো মানুষজন ঘরে বন্দি হয়ে আছেন।