• বৃহস্পতিবার, অক্টোবর ১৭, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:৩৮ রাত

আফগানিস্তানে তালেবানের জোড়া হামলায় নিহত ৫২

  • প্রকাশিত ০৭:২০ রাত সেপ্টেম্বর ১৭, ২০১৯
বোমা হামলা
আফগানিস্তানে তালেবানের জোড়া বোমা হামলায় ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। এএফপি

তবে, সমাবেশস্থলে উপস্থিত থাকলেও আফগান প্রেসিডেন্টের কোনো ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ

আফগানিস্তানে তালেবানের জোড়া বোমা হামলায় ৫২ জনের মৃত্যু হয়েছে। মঙ্গলবার (১৭ সেপ্টেম্বর) রাজধানী কাবুলের মাসউদ স্কয়ার ও পারওয়ান প্রদেশে দেশটির প্রেসিডেন্টের নির্বাচনী সমাবেশে পৃথকভাবে এই হামলা চালানো হয়।

বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, উত্তরাঞ্চলে প্রেসিডেন্ট আশরাফ ঘানির সমর্থনে আয়োজিত নির্বাচনী সমাবেশে মোটরসাইকেল আরোহীর আত্মঘাতী বোমা হামলায় কমপক্ষে ৩০ জন নিহত এবং ৩১ জন আহত হয়েছেন।

তবে, সমাবেশস্থলে উপস্থিত থাকলেও ঘানির কোনো ক্ষতি হয়নি বলে জানিয়েছে সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষ। এ ঘটনার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে কাবুলের মার্কিন দূতাবাসের কাছে আরেকটি বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটলেও সে বিষয়ে তাৎক্ষণিক কিছু জানা যায়নি।

জানা যায়, দেশটির উত্তর পারওয়ান প্রদেশের চরাকার শহরের উপকণ্ঠে আয়োজিত ঘানির নির্বাচনী সমাবেশের প্রবেশমুখে হামলাকারী মোটরসাইকেলে নিয়ে আসা বিস্ফোরকসহ ধাক্কা দেয়।

পারওয়ান সরকারের মুখপাত্র ওয়াহিদা শাহকার বলেন, সমাবেশ শুরু হওয়ার কিছুক্ষণের মধ্যে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। এদিকে স্থানীয় কর্মকর্তা ডা. কাসিম সানগিন বলেন, হতাহতদের মধ্যে অনেক মহিলা ও শিশু রয়েছে।

এদিকে কাবুলের কেন্দ্রস্থলে মাসউদ স্কয়ারে তালেবানের বোমা হামলায় ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। কাবুল পুলিশ প্রধানের মুখপাত্র ফিরদৌস ফারামার্জ বলেন, বিস্ফোরণে ২২ জনের মৃত্যু হয়েছে। ঘটনাস্থলের কাছাকাছি আফগান সরকারের বেশ কয়েকটি মন্ত্রণালয়সহ ন্যাটো এবং আমেরিকান অফিসগুলো অবস্থিত।

এর আগে, তালেবানরা নির্বাচন এলাকা ও নির্বাচনী সমাবেশগুলো টার্গেট করা হচ্ছে বলে হুশিয়ারি দিয়েছিল। আগামী ২৮ সেপ্টেম্বর আফগানিস্তানে প্রেসিডেন্ট নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে।

প্রসঙ্গত, উপসাগরীয় আরব রাষ্ট্র কাতারে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র-তালেবানদের মধ্যে মাসব্যাপী আলোচনা শেষে আমেরিকার প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্পের ঘোষণার পর গত সপ্তাহে আফগানিস্তানের নির্বাচনের প্রচারাভিযান শুরু হয়েছে। তবে শুরু থেকেই নির্বাচনের বিরোধিতা করে আসছে তালেবান।