• বুধবার, অক্টোবর ২৩, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ১০:২৭ রাত

পানির নিচে মৎস্যমানবের ২ ঘণ্টা

  • প্রকাশিত ১২:০০ দুপুর সেপ্টেম্বর ২২, ২০১৮
মৎস্যমানব  মিজান
মৎস্যমানব খ্যাত কুমিল্লার মিজান চৌধুরী এবার দুই ঘণ্টা নওগাঁর একটি পুকুরে একটানা ডুব দিয়ে পানির নিচে অবস্থান করেন। ছবি: ঢাকা ট্রিবিউন।

উল্লেখ্য, আগে থেকেই একটি চেয়ার বাঁশের খুঁটি দিয়ে পানির নিচে আটকানো ছিল। সেই চেয়ারে বসে তিনি বিভিন্ন খাবারও গ্রহণ করেন।

মৎস্যমানব খ্যাত কুমিল্লার মিজান চৌধুরী এবার দুই ঘণ্টা নওগাঁর একটি পুকুরে একটানা ডুব দিয়ে পানির নিচে অবস্থান করেছেন। গত শুক্রবার বিকালে স্থানীয় সংগঠন একুশে পরিষদ নওগাঁর ২৫ বছর পূর্তি উপলক্ষ্যে আয়োজিত সাঁতার প্রতিযোগিতা শেষে জেলা প্রশাসক মো. মিজানুর রহমানের উপস্থিতিতে তিনি তার এই ক্ষমতার প্রদর্শন করেন। পরে রাতে তাকে শহরের ড্যাফোডিলস স্কুল মঞ্চে সংবর্ধনা দেওয়া হয়। 

দেশের খ্যাতিমান এই ডুব সাঁতারু বিকাল সাড়ে ৪ টা থেকে সন্ধ্যা সাড়ে ৬টা পর্যন্ত পানির নিচে ডুবে ছিলেন। উল্লেখ্য, আগে থেকেই একটি চেয়ার বাঁশের খুঁটি দিয়ে পানির নিচে আটকানো ছিল। সেই চেয়ারে বসে তিনি বিভিন্ন খাবারও গ্রহণ করেন।

এভাবে দুই ঘন্টা দুবে থাকার পর নওগাঁর পুলিশ সুপার মো: ইকবাল হোসেন মৎস্যমানব মিজানকে হাত ধরে তুলে নিয়ে আসেন। এইসময় তার এই প্রদর্শনী উপভোগ করতে পুকুরের চারপাশে ভিড় জমানো অগণিত দর্শকের করতালিতে মুখরিত হয়ে ওঠে চারিদিক।

অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মিজানুর রহমান ছাড়াও, একুশে পরিষদ নওগাঁর সভাপতি ডি এম আব্দুল বারী, জেলা প্রেস ক্লাবের সভাপতি কায়েস উদ্দিন, একুশে পরিষদ নওগাঁর প্রচার ও প্রকাশনা সম্পাদক আব্দুর রউফ পাভেলসহ স্থানীয় বিভিন্ন গণ্যমান্য ব্যাক্তিবর্গ উপস্থিত ছিলেন। 

উল্লেখ্য, এরআগেও ২০০০ সালের মে মাসে চাঁদপুরের মতলব উপজেলার একটি পুকুরে সর্বোচ্চ ৭২ ঘণ্টা পানির নীচে অবস্থান করে আলোড়ন সৃষ্টি করেছিলেন তিনি। যার প্রেক্ষিতে মৎস্যমানব উপাধি পান মিজান। তার লক্ষ্য গিনেজ বুক অফ ওয়ার্ল্ড রেকর্ডসে তার নাম উঠানো। 

প্রসঙ্গত, বাংলাদেশ সেনাবাহিনীর সাবেক সদস্য মিজান বর্তমানে শিক্ষকতার পাশপাশি বিভিন্ন সামাজিক কার্যক্রমে নিজেকে নিয়োজিত রেখেছেন।