• রবিবার, জুলাই ২১, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০১:৫১ দুপুর

মঙ্গলগ্রহে 'স্টার ট্রেক'র লোগোর সন্ধান পেল নাসা!

  • প্রকাশিত ০৬:৩৬ সন্ধ্যা জুন ১৯, ২০১৯
নাসা/স্টারট্রেক
মঙ্গলে পাওয়া স্টার ট্রেকের লোগোর আকৃতির বালির ঢিবি। ছবি- নাসা/দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট

কিন্তু প্রাণীর অস্তিত্ববিহীন এই গ্রহে এমন অদ্ভুত আকৃতির বালির ঢিবি তৈরিই বা হয়েছে কী করে?

মঙ্গলগ্রহের বুকে ভি আকৃতির বালির ঢিবি বা ডিউনের সন্ধান সন্ধান পেয়েছে নাসা যা দেখতে অনেকটাই বিখ্যাত সিনেমা ফ্র্যাঞ্চাইজ স্টার ট্রেকের স্টারফ্লিটের (সিনেমায় দেখানো এক বিষেশ সংস্থা)  লোগোর মতো। তবে এটি যে স্টারফ্লিটের দ্বারা তৈরি হয়নি সেটাও নিশ্চিত করেছে নাসা। 

মঙ্গলে পাঠানো নাসার 'মার্স রিকনিসেন্স অরবিটার' এর 'হাইরাইজ' ক্যামেরা দ্বারা ছবিগুলো তোলা হয়েছে।  

নাসা জানায়, "উচ্চাভিলাষী দর্শকরা হয়তো এই আবিষ্কারের সাথে বিখ্যাত এক লোগোর মিল খুঁজে পাবে, তবে এটি কাকতাল ছাড়া আর কিছুই নয়।" ব্রিটিশ গণমাধ্যম দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্টের এক প্রতিবেদন এ খবর এসেছে।

কিন্তু প্রাণীর অস্তিত্ববিহীন এই গ্রহে এমন অদ্ভুত আকৃতির বালির ঢিবি তৈরিই বা হয়েছে কী করে?

প্রতিবেদনে দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট জানায়, ভি আকৃতির বালির ঢিবি (ডিউন) তৈরি হওয়ার ব্যাপারটি আসলে পুরোপুরিই প্রাকৃতিক। মঙ্গলের দক্ষিণাংশে অবস্থিত হেলাস প্লানিশিয়া অঞ্চলে এই বিশেষ বালির ঢিবির দেখা পাওয়া গিয়েছে। বালি, লাভা ও বাতাসের ফলে বহু বছর ধরে ধীরে ধীরে এই আকৃতি তৈরি হয়েছে।

ছবিগুলো যুম আউট করে দেখা যায় ভি আকৃতির একাধিক বালির ঢিবি সেখানে রয়েছে। ছবি- নাসা/দ্য ইন্ডিপেন্ডেন্ট

প্রাচীন মঙ্গলগ্রহে ক্রিসেন্ট আকৃতির বিশালাকায় বালির স্তুপ ছিল। মঙ্গলের ভূমির ওপর দিয়ে যখন লাভা বয়ে গিয়েছিল তখন বালির স্তুপগুলোর নিচ দিয়েও বয়ে যায় কিন্তু এগুলোর চূড়া লাভা স্পর্শ করতে পারে নি।

এরপর লাভাগুলো ঠাণ্ডা হয়ে শক্ত হয়ে গেলে বালির স্তুপের নিচের ভূমিও শক্ত হয়ে যায়, কিন্তু স্তুপগুলো উঁচু হয়ে থাকে যেন দ্বীপের মতো। বাতাস বয়ে চলার কারণে সেই স্তুপগুলো ধীরে ধীরে ক্ষয়ে যেতে থাকে। আর তাতেই বালির ঢিবিগুলোর একাংশ ক্ষয়ে ফাঁকা হয়ে গিয়ে এমন ভি আকৃতি তৈরি করে। 

ছবিগুলো যুম আউট করে দেখা যায় ভি আকৃতির একাধিক বালির ঢিবি সেখানে রয়েছে। এগুলোর কোনোটি পুরোপুরি ভি আকৃতি পেয়েছে, কোনোটি বা পায়নি।