• বৃহস্পতিবার, জুলাই ১৮, ২০১৯
  • সর্বশেষ আপডেট : ০৬:৪৯ সন্ধ্যা

বিএনপি: প্রধানমন্ত্রীর চা-চক্র ‘বিবেকহীন আনন্দেরই সমতুল্য’

  • প্রকাশিত ১০:৫২ রাত ফেব্রুয়ারি ৩, ২০১৯
বিএনপি

বিএনপি, জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও গণতান্ত্রিক বামজোট ছাড়া অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা প্রধানমন্ত্রীর চা-চক্রে অংশ নিয়েছেন

গণভবনে প্রধানমন্ত্রীর চা-চক্রকে ‘বিবেকহীন আনন্দের সমতুল্য’ আখ্যায়িত করে দেশের গণতন্ত্রমনা কোনো রাজনৈতিক দল এতে অংশগ্রহণ করেনি বলে দাবি করেছে বিএনপি। 

রবিবার নয়াপল্টনের দলীয় কার্যালয়ে বিএনপির সিনিয়র যুগ্ম মহাসচিব রুহুল কবির রিজভী বলেন, "গোটা জাতির সঙ্গে নির্লজ্জ মহাতামাশার নির্বাচনের পর উল্লসিত সরকারের চা-চক্রের আয়োজন বিবেকহীন আনন্দেরই সমতুল্য।"

তিনি আরও বলেন, "জনগণের সঙ্গে প্রতারণাকারী সরকারের জয়ল্লাসের চা-চক্রে দেশের গণতন্ত্রমনা কোনো রাজনৈতিক দলই অংশগ্রহণ করেনি। এটাই জনগণের বিজয়।"

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনের আগে সংলাপে বসা রাজনৈতিক দলগুলোর নেতাদের জন্য শনিবার গণভবনে চা-চক্রের আয়োজন করেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।

এদিকে বিএনপিসহ জাতীয় ঐক্যফ্রন্ট ও গণতান্ত্রিক বামজোট ছাড়া অন্য রাজনৈতিক দলগুলোর নেতারা প্রধানমন্ত্রীর চা-চক্রে অংশ নেয়।

অপরদিকে ৩০ ডিসেম্বরের জাতীয় নির্বাচনে ভোট জালিয়াতির অভিযোগ করে ফলাফল প্রত্যাখ্যান করে ঐক্যফ্রন্ট ও বাম জোট পুনর্নির্বাচনের দাবি জানিয়ে আসছে।

রিজভী বলেন, "বাংলাদেশ এখন গণতন্ত্রশূন্য। গণতন্ত্রহীনতায় বাংলাদেশের জনগণ এখন রাষ্ট্রদাসত্ব করছে। রাষ্ট্র এখন এক ব্যক্তি ও এক দলের কব্জায়। একদলীয় শাসনে রাষ্ট্র জনগণকে দাসে পরিণত করে।"

তিনি অভিযোগ করে বলেন, "এক ব্যক্তির একদলীয় শাসন নিরাপদ করতেই দেশের সবচেয়ে জনপ্রিয় নেত্রী ও তিনবারের প্রধানমন্ত্রী দেশনেত্রী বেগম খালেদা জিয়াকে কারাগারে আটকানো হয়েছে। কোনো কারণ ছাড়াই হাজার হাজার মিথ্যা মামলায় বিএনপির লাখ লাখ নেতা-কর্মীকে জড়ানো হয়েছে। হাজার হাজার নেতা-কর্মীকে গ্রেফতার করা হয়েছে।"